ছাদখোলা বাসে চড়তে তর সইছে না সানজিদার

প্রথমবারের মতো জিতে নিয়েছে সাফ চ্যাম্পিয়নশিপ। এমন অর্জনের উদযাপনটাও হতে যাচ্ছে বেশ বড় করে। ফাইনালের আগে ফেসবুক স্ট্যাটাসে আক্ষেপ করেছিলেন জাতীয় দলের ফুটবলার সানজিদা আক্তার।

তিনি লিখেছিলেন, ‘ছাদখোলা চ্যাম্পিয়ন বাসে ট্রফি নিয়ে না দাঁড়ালেও চলবে, সমাজের টিপ্পনী কে একপাশে রেখে যে মানুষগুলো আমাদের সবুজ ঘাস ছোঁয়াতে সাহায্য করেছে, তাদের জন্য এটি জিততে চাই। ’ তবে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পর তাদের ঠিকই ছাদখোলা বাসে বরণ করা হবে।

ওই অপেক্ষায় তর সইছে না সানজিদা আক্তারের। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তাদের জন্য প্রস্তুত করা বাসের ছবি দিয়েছেন তিনি। সঙ্গে লিখেছেন, ‘অধীর আগ্রহে অপেক্ষায় আছি। ’

আজ দুপুর ১টা ৪৫ মিনিটে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের পৌঁছাবেন সাবিনা-কৃষ্ণারা। সাফ বিজয়ী বাঘীনিদের বরণ করে নিতে প্রস্তুত করা হচ্ছে ছাদ খোলা বাস।

বিমান বন্দরে সাবিনাদের বরণ করে নিতে উপস্থিত থাকবেন যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল এমপি, যুব ও ক্রীড়া সচিব এবং মন্ত্রণালয় ও বাফুফে কর্মকর্তারা। তবে সেখানে বাফুফে সভাপতি কাজী সালাউদ্দিন উপস্থিত থাকবেন না। তিনি থাকবেন বাফুফে ভবনে।

বিমানবন্দর থেকে ছাদ খোলা বাসটি যাত্রা শুরু করবে কাকলি হয়ে। এরপর মহাখালী ফ্লাইওভার ব্যবহার করে জাহাঙ্গীর গেট, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় অফিসের পর বিজয় সরণীতে এসে হাতের বাঁয়ে চলে যাবে। সেখান থেকে তেজগাঁও হয়ে পুনরায় ফ্লাইওভার দিয়ে মৌচাক হয়ে কাকরাইলে আসবে। কাকরাইল থেকে হাতের বাঁয়ে- ফকিরাপুল, আরামবাগ এবং মতিঝিল ও শাপলা চত্বর হয়ে বাফুফে এসে পৌঁছাবে।

বাফুফে ভবনে উপস্থিত থাকবেন সভাপতি কাজী সালাউদ্দিন। মেয়েরা আসার পর তাদেরকে ফুল দিয়ে তিনি বরণ করে নেবেন। এরপর ফটোসেশন হবে।