পুনমকে যৌন হেনস্তার অভিযোগে গ্রেপ্তার স্বামী

স্বামীর বিরুদ্ধে আবারও যৌন হেনস্তা ও নির্যাতনের অভিযোগ আনলেন বলিউড অভিনেত্রী ও মডেল পুনম পাণ্ডে। তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে আর তাঁর স্বামী স্যাম বোম্বেকে গ্রেপ্তার করেছে মুম্বাই পুলিশ।

এমনই অভিযোগ করেছেন বলিউডের বিতর্কিত নায়িকা পুনম পাণ্ডে। সেই অভিযোগের ভিত্তিতে তার স্বামীকে গ্রেপ্তার করেছে মুম্বাই পুলিশ। স্বামীকে পুলিশ নিয়ে যাওয়ার পরই পুনম ভর্তি হন হাসপাতালে।

ভারতীয় গণমাধ্যমে মুম্বাই পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়, স্বামীর বিরুদ্ধে মারধরের অভিযোগ করেন পুনম। সেই অভিযোগের ভিত্তিতে রোববার পুনমের স্বামী স্যাম বম্বকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। পুনম আপাতত হাসপাতালে ভর্তি আছেন।

স্বামীর বিরুদ্ধে এবারই প্রথম মারধরের অভিযোগ তুললেন না পুনম। গত বছর সেপ্টেম্বরে একই অভিযোগ তুলেছিলেন তিনি। বিয়ের ঠিক ২১ দিনের মাথায় স্বামীর বিরুদ্ধে যৌন নিগ্রহের অভিযোগ এনেছিলেন। গোয়ায় হানিমুনে দিয়ে স্বামীর বিরুদ্ধে পুলিশে এফআইআরও দায়ের করেন এই বিতর্কিত নায়িকা।

টাইমস অফ ইন্ডিয়াকে দেওয়া সাক্ষাৎকার পুনম বলছিলেন, ‘স্যামের সঙ্গে আমার একটা কথা কাটাকাটি হয়। যা দ্রুতই মারাত্মক আকার নেয়। এরপরই ও আমায় মারতে শুরু করে। আমার গলা টিপে ধরে। আমার মনে হচ্ছিল আমার দমবন্ধ হয়ে মৃত্যু হয়ে যাবে। আমার মুখে ঘুসি মারে, চুল ধরে টেনেহিঁচড়ে নিয়ে যায়, এরপর আমার খাটের কোণায় আমার মাথা ঠুকে দেয়। এতেও থামেনি! আমার শরীরের উপর হাঁটু গেড়ে বসে আমার উপর নির্যাতন চালায়।’

সেই অভিযোগের পর সপ্তাহ ঘুরতে না ঘুরতেই সব মনোমালিন্য ভুলে আবারও সুখের সংসার পাততে প্রস্তুত হয়ে গিয়েছিলেন পুনম। তিনি বলেছিলেন, ‘আমরা নিজেদের মধ্যে সব মনোমালিন্য ভুলে আবারও একজোট হওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। বলতে পারেন, আমরা আবার এক হয়ে গেলাম। আসলে কী জানেন, আমরা একে অপরকে এতটাই ভালোবাসি, আসলে পাগলের মতো ভালোবাসি… তাই। আর সত্যি বলতে বলুন না, কোন বিয়েতে চড়াই-উতরাই থাকে না?

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে খোলামেলা ছবি ও ভিডিও পোস্ট করে প্রায়ই বিতর্কের ঝড় তোলেন ২৯ বছর বয়সী এই মডেল ও বলিউড অভিনেত্রী। গত বিধিনিষেধে সৈকতে খোলামেলা ভিডিও ধারণ করার সময় পুলিশের হাতে আটক হয়েছিলেন তিনি।