সৌদি ও আমিরাতে স্থায়ীভাবে অস্ত্র বিক্রি বন্ধ ইতালির

এবার সৌদি আরব ও সংযুক্ত আরব আমিরাতে অস্ত্র বিক্রি স্থায়ীভাবে বন্ধ করে দিয়েছে ইতালি। ইয়েমেন যুদ্ধে এসব অস্ত্র ব্যবহার করা হচ্ছে যার কারণে এই সিদ্ধান্ত নিল ইতালি।

ইয়েমেন যুদ্ধে সংশ্লিষ্টতার কারণে দেড় বছর আগে সৌদি আরব ও সংযুক্ত আরব আমিরাতে অস্ত্র বিক্রি সাময়িকভাবে বন্ধ করে দিয়েছিল ইতালি। শুক্রবার সেই সিদ্ধান্তকে স্থায়ী রূপ দিল ইউরোপের দেশটি। ইতালির পররাষ্ট্রমন্ত্রী লুইজি দি মাইও বলেন, আমি ঘোষণা দিচ্ছি, সরকার সৌদি আরব ও সংযুক্ত আরব আমিরাতের কাছে ক্ষেপণাস্ত্র ও বোমা রপ্তানি অনুমতি বাতিল করেছে।

তিনি বলেন, ‘এই কাজটি আমরা যথাযথ বলে বিবেচনা করেছি। এটি আমাদের দেশ থেকে শান্তির পক্ষে পরিষ্কার বার্তা। মানবাধিকারের প্রতি সম্মান প্রদর্শন করা আমাদের একটি অটুট প্রতিশ্রুতি।’

এর দুই দিন আগে সৌদি ও আমিরাতে কোটি কোটি ডলারের অত্যাধুনিক অস্ত্র বিক্রির সিদ্ধান্ত স্থগিত করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। তার দুইদিন পরই এই সিদ্ধান্ত জানাল ইতালি।

এর আগে ক্ষমতা থেকে বিদায় নেওয়ার শেষ মুহূর্তে সৌদি আরব ও সংযুক্ত আরব আমিরাতে অত্যাধুনিক ড্রোন, ক্ষেপণাস্ত্র ও বিপুল পরিমাণ গোলাবারুদ বিক্রির অনুমোদন দিয়েছিলেন সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। কিন্তু ক্ষমতা গ্রহণের এক সপ্তাহের মাথায় তা স্থগিত করেন দেশটির নতুন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন।