এইচএসসি পরীক্ষার ফরম পূরণের টাকা ফেরত পাবে পরীক্ষার্থীরাঃ শিক্ষামন্ত্রী

এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা না হওয়ায় পরীক্ষার্থীদের ফরমপূরণ বাবদ আদায় করা অর্থের কিছু অংশ আমাদের ব্যয় হয়েছে বলেছেন, শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। কিন্তু যে অংশ ব্যয় হয়নি, সেই অব্যয়িত অংশ ফেরত দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। ফল প্রকাশের পরপরই এ বিষয়ে বোর্ডগুলো তাদের স্ব-স্ব ওয়েবসাইটে বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে জানিয়ে দেবে।

আজ শনিবার (৩০ জানুয়ারী) সকালে রাজধানীর আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউটে ফল প্রকাশের পর শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি এসব কথা বলেন।

সূত্র জানায়, ২০২০ সালে ১১টি শিক্ষা বোর্ডের অধীনে এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা দেওয়ার কথা ছিল ১৩ লাখ ৬৭ হাজার ৩৭৭ জন শিক্ষার্থীর। পরীক্ষা শুরু হওয়ার কথা ছিল ১ এপ্রিল থেকে। কিন্তু করোনাভাইসের প্রকোপ বাড়তে শুরু করলে ১৭ মার্চ থেকে দেশের সব শিক্ষা-প্রতিষ্ঠান বন্ধ করে দেওয়া হয়। তার আগে এসএসসি পরীক্ষা হয়ে গেলেও আটকে যায় এইচএসসি পরীক্ষা।

উল্লেখ্য, করোনার কারণে দীর্ঘদিন অপেক্ষা করে পরীক্ষা নেওয়া সম্ভব হয়নি। ফলে অষ্টমের সমাপনী ও এসএসসির ফলাফলের গড় করে ২০২০ সালের এইচএসসির ফল প্রকাশ করা হয়েছে।