অভিষেকেই ৭১ বছরের রেকর্ডে ভাগ বসালেন পাকিস্তানি স্পিনার

১৪ বছর পর পাকিস্তান সফরে এসেছে দক্ষিন আফ্রিকা। মাঠে নামার আগে ইয়াসির শাহকে নিয়ে বিস্তর পড়ালেখা করেছিল দক্ষিণ আফ্রিকা। শেষ পর্যন্ত সবই পণ্ড শ্রম হলো প্রোটিয়াদের।

সাদা জার্সিতে অভিষেক হওয়া (৩৪ বছর ১১১ দিন বয়সে) নোমান আলীর ঘূর্ণিঝড়ে উড়ে গেল প্রোটিয়ারা। দ্বিতীয় ইনিংসে মাত্র ৩৫ রানে পাঁচ উইকেট নিয়ে অভিষেক টেস্টকে ঐতিহাসিক করে রাখলেন পাকিস্তানের এ বাঁহাতি স্পিনার। অভিষেকেই ৭১ বছরের রেকর্ড ভাঙলেন এ পাকিস্তানি স্পিনার।

পরিসংখ্যান বলছে, বিশ্ব ক্রিকেটের রেকর্ডে স্থান করে নিয়েছেন নোমান আলী। গত ৭১ বছরের মধ্যে তার চেয়ে বেশি বয়সে অভিষিক্ত কোনো ক্রিকেটার পাঁচ উইকেট নিতে পারেননি। এত বছর ধরে এ রেকর্ডটি নিউজিল্যান্ডের ফেন ক্রেসওয়েলের একার দখলে ছিল। ১৯৪৯ সালে ৩৪ বছর ১৪৬ দিন বয়সে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে নিজের অভিষেকে ৫ উইকেট নিয়েছিলেন ক্রেসওয়েল।

আর ৩৪ বছর ১১১ দিন বয়সে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে অভিষেক ম্যাচে ফাইফার নিয়েছেন নোমান। আর শুধু স্পিনারদের মধ্যে হিসেব করলে ৮৭ বছরের পুরোনো রেকর্ড ভেঙে দিয়েছেন তিনি। সবমিলিয়ে সপ্তম বয়স্ক বোলার হিসেবে অভিষেকে পাঁচ উইকেট শিকার করেছেন নোমান।

নোমানের স্পিন ঘূর্ণিতে করাচি টেস্টে মাত্র ২৪৫ রানে অলআউট হয়ে যায় দক্ষিণ আফ্রিকা। পাকিস্তানের সামনে মাত্র ৮৮ রানের লিড দিতে পারে। যা অনায়াসেরই পার করে করাচি টেস্ট নিজেদের করে নেয় পাকিস্তান।