মন্দার কবলে পড়লো শ্রমিকের হাট

মৃদু শৈত্যপ্রবাহে কারণে মন্দার কবলে পড়েছে রংপুরের শ্রমিকের হাট। কয়েক দিনের টানা মৃদু শৈত্যপ্রবাহে দেখা দিয়েছে ক্রেতা সংকট। এতে শ্রমিক কেনাবেচা একেবারে কমে যাওয়ায় পরিবার-পরিজন নিয়ে মহাসংকটে গরিব মানুষ।

শক্তি-সামর্থ দেখে দরদাম করে পুরো একটি দিন কাজ করিয়ে নিতে হাট থেকে থেকে শ্রমিক কিনে নিয়ে যান ক্রেতারা। এখানকার শ্রমিকদের আছে সব ধরনের কাজের অভিজ্ঞতা। আছে প্রয়োজনীয়সংখ্যক শ্রমিক পাওয়ার সুযোগও। প্রতিদিন ভোরে অভাবী জনপদের রাজধানী খ্যাত রংপুর নগরীর কেন্দ্রস্থল শাপলা চত্বরে বসে এই হাট।

প্রতিদিন প্রচুর শ্রমিক সমাগম হলেও তীব্র শীতের কারণে ইদানীং ক্রেতাশূন্য এই হাট। কুয়াশা আর কনকনে ঠান্ডা উপেক্ষা করে প্রতিদিন সাতসকালে এসে ক্রেতার জন্য অপেক্ষা করেও খদ্দের বা ক্রেতা মিলছে না। ফলে তাদের ফিরে যেতে হচ্ছে মলিন মুখে।

আবহাওয়া অফিস বলছে, আরও দু-একদিন শৈত্যপ্রবাহ ও শীতের তীব্রতা থাকবে।

রংপুর আবহাওয়া অফিস ইনচার্জ কামরুজ্জামান বলেন, আগামী আরও দুই দিন তাপমাত্রা কমবে এবং শীত ও আরও বাড়বে। যার ফলে হালকাভবে যেতে পারে শৈত্যপ্রবাহ।

উল্লেখ্য, চলতি মাসের শেষ সপ্তাহজুড়ে মৃদু থেকে মাঝারি শৈত্যপ্রবাহের পূর্বাভাস দিয়েছে আবহাওয়া বিভাগ। আর তাপমাত্রা সীমাবদ্ধ সাড়ে ৯ থেকে ১২ ডিগ্রি সেলসিয়াসে।