রোগীদের জন্য দেশের রেলবহরে যুক্ত হবে অ্যাম্বুলেন্স রেলঃ রেলমন্ত্রী

রেলপথ মন্ত্রী নূরুল ইসলাম সুজন বলেছেন, রোগী পরিবহনের জন্য দেশের রেলবহরে যুক্ত হবে অ্যাম্বুলেন্স রেল। এটির মাধ্যমে এয়ার অ্যাম্বুলেন্সের মতো রোগিরা খুব সহজে গন্তব্যে পৌঁছাতে পারবেন।

রবিবার (২৪ জানুয়ারি) দুপুরে পঞ্চগড় বীর মুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল ইসলাম রেলস্টেশনে অত্যাধুনিক লাগেজ ভ্যানে কৃষিজাতপণ্য পরিবহন সংক্রান্ত এক সভায় রেলমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

এসময় নূরুল ইসলাম সুজন আরো বলেন, ‘পণ্য পরিবহনের জন্য অত্যাধুনিক ২০০ লাগেজ ভ্যান আমদানি করা হচ্ছে। এর মাধ্যমে ব্যবসায়ীরা প্রান্তিক এলাকা থেকে সহজেই তাদের কৃষিজসহ বিভিন্ন পণ্য রেলে পরিবহন করতে পারবেন। এজন্য এজেন্ট নিয়োগ করা হবে। তাদের কাজ হবে পণ্যগুলো সঠিকভাবে নির্দিষ্ট গন্তব্যে পৌঁছে দেয়া।’

মন্ত্রী আরও বলেন, ‘সরকার সড়ক, নৌ, বিমান ও রেল পরিবহনকে সমানভাবে জনগণের ব্যবহার উপযোগী করার জন্য কাজ করে যাচ্ছে। মানুষ রেলে খুব সাশ্রয় ও নিরাপদে মানুষ যাতায়াত করতে পারেন। আমাদের নিজস্ব নিরাপত্তা বাহিনী রয়েছে। তাই মানুষ সড়কপথের চেয়ে এখন রেলে বেশি যাতায়াত করতে স্বাচ্ছন্দবোধ করে।

নূরুল ইসলাম সুজন বলেন, ১৭ ডিসেম্বর চিলাহাটি-হলদিবাড়ী রুটে বাংলাদেশ ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী রেল যোগাযোগের মাধ্যমে পণ্য পরিবহন কার্যক্রম উদ্বোধন করেছেন। আগামী ২৬ মার্চ ঢাকা থেকে শিলিগুড়ি পর্যন্ত রেলপথে যাত্রী পরিবহন চালু করার প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে। পঞ্চগড়ের বাংলাবান্ধা দিয়ে শিলিগুড়ি পর্যন্ত রেলযোগাযোগ স্থাপন করা হলে ভারত, নেপাল ও ভুটানের সাথে এই রুটে রেল যোগাযোগ স্থাপন হবে। আমরা চেষ্টা করছি দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে রেলপথে যোগাযোগ স্থাপন করার। শিগগিরই পঞ্চগড় থেকে কক্সবাজার পর্যন্ত রেল যোগাযোগ চালু হবে।