সৌদির ৬২ কোটির অফার ফিরিয়ে দিলেন রোনালদো

সৌদি আরবের পর্যটন বোর্ডের প্রচারণার জন্য বড় অংকের প্রস্তাব নাকচ করে দিলেন সিআরসেভেন খ্যাত ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোকে।

আজ শনিবার (২৩ জানুয়ারি) যুক্তরাজ্যভিত্তিক গণমাধ্যম টেলিগ্রাফের একটি প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

জনপ্রিয় পর্তুগাল তথা জুভেন্টাসের তারকা ফুটবলার ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। খেলাপ্রেমীরা তাকে পছন্দ করেন না এমন সংখ্যা খুবই কম। খেলার পাশাপাশি বিভিন্ন রকম পণ্যের প্রচার প্রচারণায় তার মুখ দেখা যায়। কয়েক মিনিটেই এসব প্রচার প্রচারণা করে কোটি কোটি টাকা আয় করতে পারেন এই সিআরসেভেন।

সৌদি আরবও রোনালদোকে তেমনি একটি প্রচারণার জন্য প্রস্তাব দিয়েছিলেন। প্রস্তাবটি ছিল দেশটির পর্যটন বোর্ডের প্রচারণার জন্য। যার বিনিময়ে তাকে বছরে ছয় মিলিয়ন ইউরো প্রস্তাব করা হয়েছিল। যার বাংলাদেশি মূল্য প্রায় ৬২ কোটি টাকা! কিন্তু সেই প্রস্তাব তিনি ফিরিয়ে দিলেন। কেন এমন প্রস্তাব ফিরিয়ে দিলেন সে বিষয়ে এখনো কিছুই জানা যায়নি।

চলতি সপ্তাহের শুরুতেই ফুটবলের ইতিহাসে সর্বোচ্চ গোলদাতা হয়েছেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। অপরদিকে মেসিও ষষ্ঠবারের জন্য বিশ্বের সেরা ফুটবলারের শিরোপা জিতেছেন। তাদের মুখ ব্যবহার করেই সৌদিতে পর্যটন শিল্পকে চাঙ্গা করার পরিকল্পনা করেছিল দেশটির সরকার।

নিজেদের নতুন প্রচারণা ক্যাম্পেইন ‘ভিজিট সৌদি’র অংশ হিসেবে সৌদি আরবের পর্যটন বোর্ড দিয়েছিল এই প্রস্তাব। একই প্রস্তাব তারা আর্জেন্টাইন তারকা লিওনেল মেসিকেও পাঠিয়েছিল বলে জানা গেছে।

রাজনৈতিক নানা কারণে ইমেজ সংকটে পড়া সৌদি সরকার খেলাধুলার মাধ্যমে সেই সংকট কাটিয়ে ওঠার কৌশল নিয়েছে। ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করার অংশ হিসেবেই ২০১৯ সালে বার্সেলোনা, রিয়াল মাদ্রিদ, অ্যাটলেতিকো মাদ্রিদ ও ভ্যালেন্সিয়াকে নিয়ে স্প্যানিশ সুপার কাপ নিজেদের দেশে আয়োজন করেছিল সৌদি আরব।