ক্রিকেটে ফিরেই রেকর্ড গড়লেন সাকিব

সর্বকালের অন্যতম সেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিরলেন নিজের মতো করেই। ব্যাট হাতে খুব ভাল না করলেও বল হাতে ইতোমধ্যেই হৃদয় কেড়েছেন বাংলার প্রাণ। দুর্দান্ত বোলিংয়ে মাত্র ৮ রান খরচায় নিয়েছেন ৪ উইকেট। ব্যাট হাতে করেছেন ১৯ রান। তাতেই ম্যাচ সেরা পুরস্কার জিতে নেন সাকিব।

৩১৪ দিন পর মিরপুরে ফিরেছে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট। এ ম্যাচ দিয়ে নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিরেছে। ঘরের মাঠে সাকিবের এটি ১০০তম ওয়ানডে ম্যাচ।

নিজের শততম ওয়ানডে ম্যাচে বল হাতে নেমে নিজের দ্বিতীয় ওভারেই উইকেট নেন সাকিব। দ্বিতীয় ওভারের চতুর্থ বলে ম্যাককার্থিকে বোল্ড করে সাকিব পূরণ করেন নিজের ১৫০ তম উইকেট।

এরপর নিজের চতুর্থ ওভারে বোলিংয়ে এসে আবারো উইকেট নেন সাকিব। জেসন মোহাম্মদকে স্টাম্পিংয়ের ফাঁদে ফেলে তুলে নেন নিজের দ্বিতীয় উইকেট।

দলটির খাতায় আর কোনো রান যোগ হওয়ার আগেই সাজঘরে ফেরেন এনক্রুমা বোনার। সাকিবের তৃতীয় ও বাংলাদেশের পঞ্চম শিকারে পরিণত হন তিনি। ৪ বল খেলে শূন্য রানে আউট হন অভিষেক ওয়ানডেতে নামা এই অলরাউন্ডার। অষ্টম ওভারে আরো একটি উইকেট নেন সাকিব।

সব মিলিয়ে ৭.২ ওভার বোলিং করে মাত্র ৮ রান খরচায় ২ মেডেন দিয়ে ৪ উইকেট নেন সাকিব। যা ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে বাংলাদেশী বোলারদের মধ্যে সেরা বোলিং ফিগার।

বল হাতে দারুণ পারফর্মের পর ব্যাট হাতে খুব ভাল করতে পারেননি সাকিব। ৪৩ বল মোকাবেলায় করেছেন ১৯ রান। বাউন্ডারি একটি। তবে টাইগারদের ৬ উইকেটের জয়ে ম্যাচ সেরা পুরস্কার উঠেছে তারই হাতে।

এরই সাথে ওয়ানডেতে এক মাঠে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ উইকেট নেওয়ারও রেকর্ড গড়েন সাকিব। একটি নির্দিষ্ট মাঠে ওয়ানডেতে সবচেয়ে বেশি উইকেট নেওয়ার রেকর্ড ওয়াসিম আকরামের। শারজাহতে আকরাম নিয়েছেন ১২২ উইকেট। ওয়াকার ইউনিসের ১১৪ উইকেটের রেকর্ড ভেঙে সাকিব উঠে এসেছেন দুইয়ে। তার উইকেট সংখ্যা ১১৬।