শুটিংয়ে তিন শতাধিক মৌমাছির কামড় খেয়ে হাসপাতালে অভিনেতা

ছোট পর্দার অভিনেতা ও পরিচালক মিলন ভট্টাচার্য শুটিংয়ে প্রায় তিন শতাধিক মৌমাছির কামড়ে গুরুতর অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। মৌমাছির কামড়ে একসময় তিনি অচেতন হয়ে পড়েন।

সোমবার (১৮ জানুয়ারি) সকালে মানিকগঞ্জের বেথিলা জমিদার বাড়িতে জমিদার বাড়ি নামে একটি ধারাবাহিক নাটকের শুটিং সেটে এ ঘটনা ঘটে।

নির্মাতা সাজ্জাদ হোসেন দোদুল সংবাদমাধ্যমকে জানান, সকাল ১০টা থেকে শুটিং চলছিল জমিদার বাড়ির পাশে বাঁশঝাড়ে । শুটিং চলাকালীন বেলা সাড়ে ১১টার দিকে হঠাৎ মৌমাছির আক্রমণ শুরু হয়। হঠাৎ মৌমাছির আক্রমণে লাইট, ক্যামেরা ফেলে উপস্থিত সবাই দৌড়াতে থাকেন। এ সময় শুটিং ইউনিটের অভিনয়শিল্পী, ক্যামেরাম্যান, ক্রুসহ ১৭ জন আক্রমণের শিকার হন। অভিনেতা মিলন ভট্টাচার্যের গায়ে লাল রঙের পাঞ্জাবি-ধুতি থাকায় তিনি যেদিকে দৌড়ে পালানোর চেষ্টা করেছেন। সেদিকেই মৌমাছি গিয়ে তাঁকে কামড়িয়েছে। তখন তার পোশাকের ভেতর ঢুকে পড়ে বেশি কিছু মৌমাছি। এরপর রাস্তায় পড়ে যান।

তিনি আরও বলেন, হাজার খানেক মৌমাছির আমাদের লক্ষ্য করে কামড়ানো শুরু করে। সবচেয়ে বেশি কামড়িয়েছে মিলনকে। আমি নিজে তাঁর শরীর থেকে ৫০টির বেশি শাল উঠিয়েছি। তাঁর শারীরিক অবস্থা খারাপ হলে সঙ্গে সঙ্গে মানিকগঞ্জের সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানেই তাঁর চিকিৎসা চলছে।