দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা নওগাঁয়, শৈত্যপ্রবাহ নিয়ে যা বললো অধিদপ্তর

তাপমাত্রা ১০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের নিচে নামলে তাকে শৈত্যপ্রবাহ বলা হয়। স্বাভাবিকভাবেই শৈত্যপ্রবাহের সময় তীব্র শীত অনুভূত হয়, যা স্বাভাবিক। এ শীতে ডিসেম্বরে কয়েকটি শৈত্যপ্রবাহ বয়ে গেছে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে। জানুয়ারির এই সময়েও শৈত্যপ্রবাহ বইছে।

তবে ঢাকায় এ বছর এখনও শৈত্যপ্রবাহের দেখা মেলেনি। শৈত্যপ্রবাহের সম্ভাবনা নেই। ফলে এবার তীব্র শীতের আমেজ পাচ্ছেন না ঢাকাবাসী।

প্রতিবছর ঢাকায় শৈত্যপ্রবাহ হলেও এবার না হওয়াটা অস্বাভাবিক বা প্রকৃতির বিরূপ আচরণ বলে মনে করছেন আবহাওয়াবিদরা। এ বিষয়ে আবহাওয়াবিদ মো. ওমর ফারুক বলেন, চলতি বছর এখনও ঢাকায় শৈত্যপ্রবাহ হয়নি। এ শীতে সামনেও ঢাকায় শৈত্যপ্রবাহ হওয়ার সম্ভাবনা কম।

তিনি বলেন, ঢাকায় প্রতিবছর এ রকম ঘটে না, শৈত্যপ্রবাহ হয়। অন্যান্য বছরের তুলনায় এ বছর শীতে তাপমাত্রা একটু বেশি আছে। তাই ঢাকায় শৈত্যপ্রবাহ হওয়ার সম্ভাবনা কম।

এদিকে দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা নওগাঁয় রেকর্ড করা হয়েছে ৬ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। যা এই মৌসুমের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা।

শুক্রবার (১৫ জানুয়ারি) সকালে নওগাঁ আবহাওয়া অফিসের টেলি প্রিন্টার অপারেটর রিপন আহম্মেদ বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ভোর থেকেই জেলাজুড়ে ঘন কুয়াশা থাকলেও বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে সূর্যের দেখা মিলছে। তবে ঠাণ্ডার কারণে ব্যাহত হচ্ছে চলতি মৌসুমের ধান রোপণ।

কষ্টে আছেন ক্ষুদ্র জাতিগোষ্ঠি ও ছিন্নমূল মানুষ। গত তিন দিন থেকেই এমন আবহাওয়া বইছে জেলাজুড়ে। এমন আবহাওয়া আরও কয়েকদিন থাকতে পারে।