দিহান পায়ে ধরে কান্নাকাটি করে বলে, আন্টি আমাকে বাঁচানঃ আনুশকার মা

ইংরেজি মাধ্যম পড়ুয়া আনুশকা ধর্ষণের পর হত্যার শিকার হয়েছেন জানিয়েছেন, আনুশকার মা। গত ৭ জানুয়ারি দিহান ও তার সঙ্গীরা আমার মেয়েকে অপহরণ করে নিয়ে যায়। বাসায় নিয়ে ধর্ষণ শেষে আমার মেয়েকে হত্যা করা হয়েছে। দিহান তখন ফোন দিয়ে জানায়। হাসপাতালে পায়ে ধরে কান্নাকাটি করে বলে, ‘আন্টি আমাকে বাঁচান।’ তখন দিহান আরো বলে, আমরা চারজনই তাকে বাসায় নিয়ে যাই। আমার মেয়ে ফাঁকা বাসায় একা যাওয়ার কথা না।

আজ বুধবার (১৩ জানুয়ারী) দুপুর সাড়ে ১২টায় রাজধানীর জাতীয় প্রেসক্লাবে বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে আনুশকার মা শাহনূরে আমিন এ কথা বলেন। এসময় শাহনূরে আমিন তার মেয়েকে অপহরণ করে সংঘবদ্ধভাবে ধর্ষণ ও হত্যা করা হয়েছে বলেও দাবি করেন।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে অপপ্রচার চালানো হচ্ছে অভিযোগ এনে শাহনূরে আমিন বলেন, আমার নিষ্পাপ মেয়েকে নিয়ে মিথ্যা প্রচারণা চালানো হচ্ছে। চরিত্রহনন করা হচ্ছে। এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে মিথ্যা প্রচারণাকারীদের সাইবার ট্রাইব্যুনালে বিচারের দাবি জানান শাহনূরে আমিন।