প্রেমঘটিত কারণে ঢাবি ছাত্রের আত্মহত্যা!

নিজ বাড়িতে ফ্যানের সঙ্গে ঝুলে আত্মহত্যা করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) এক ছাত্র। প্রাণিবিদ্যা বিভাগের তৃতীয় বর্ষের ওই ছাত্রের নাম তৌহিদুল ইসলাম সিয়াম।

শনিবার রাতে মোহাম্মদপুরে নূরজাহন রোডে নিজ বাসায় গলায় ফাঁস দিয়ে সিয়াম আত্মহত্যা করেন বলে জানিয়েছেন তার চাচা মুকুল হোসেন।

মুকুল হোসেন আরও বলেন, সকালে ঘুম থেকে না উঠায় দুপুরের দিকে সিয়ামের মা রুমে নক কররে না খুলায় পরে দরজা ভেঙ্গে দেখে সে ফ্যানের সঙ্গে ফাঁস দিয়ে আছে। প্রাথমিকভাবে আত্মহত্যার কারণ বলা যাচ্ছে না। তবে পরিবারের সদস্যরা তার ফোন আনলক করার চেষ্টা করছেন। ফোনের কললিস্ট, মেসেঞ্জারে হয়তো এ বিষয়ে কিছু ইঙ্গিত পাওয়া যেতে পারে।

সিয়াম ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাণিবিদ্যা বিভাগের ২০১৭-১৮ বর্ষের শিক্ষার্থী ছিলেন। বিশ্ববিদ্যালয়ের ফজলুল হক মুসলিম হলের আবাসিক এই শিক্ষার্থীর বাড়ি ঢাকার কেরানীগঞ্জের হিজলা গ্রামে।

প্রাথমিকভাবে প্রেমঘটিত কারণে হতাশা থেকেই ওই ছাত্র আত্মহত্যার পথ বেঁচে নেয় বলে ধারণা করছেন তার সহপাঠীরা। তবে আত্মহত্যার সুনির্দ্দিষ্ট কোন কারণ বলতে পারেনি নিহতের পরিবারের সদস্যরা।

মোহাম্মদপুর থানার ওসি মো. আব্দুল লতিফ গণমাধ্যমকে বলেন, আত্মহত্যার সঠিক কারণ কেউ বলতে পারছে না। তবে তার বাবা বলেছে, ছেলেটা সব সময় রিজার্ভ থাকত। মোবাইলে সব সময় ব্যস্ত থাকত।

“ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হওয়ার আগে এক মেয়ের সাথে তার প্রেমের সম্পর্ক ছিল। পরে মেয়ে মেডিকেলে চান্স পেলে তাদের দূরত্ব তৈরি হয়। এছাড়া আর কোনো কারণ তারা দেখছে না।”

তার বাবার কোনো অভিযোগ না থাকায় ময়নাতদন্ত ছাড়াই লাশ দাফনের অনুমতি দেওয়া হয় বলে জানান তিনি। (ছবি সংগ্রহীত)