যুবলীগ নেতার বিরুদ্ধে শিক্ষক পেটানোর অভিযোগ

পটুয়াখালীর মির্জাগঞ্জে এক যুবলীগ নেতার বিরুদ্ধে শিক্ষককে পেটানোর অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার উত্তর সুবিদখালী সরকারী কলেজ রোড এলাকায়।

মঙ্গলবার (২৪ নভেম্বর) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ঝাটিবুনিয়া ম.ই মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক মো. মাসুম বিল্লাহ অভিযোগ করেন।

এ ব্যাপারে তিনি বলেন, আমার প্রতিবেশী ও আমড়াগাছিয়া ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি অলি মল্লিকের সঙ্গে দীর্ঘদিন যাবত বসতভিটার জমি নিয়ে বিরোধ চলছে। এ নিয়ে আদালতে একটি মামলাও চলমান রয়েছে।

‘সোমবার দুপুরে আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে ওই জমিতে অলি মল্লিক ও তার ভাই সহিদ মল্লিকসহ কয়েকজন ব্যক্তি বিরোধীয় জমিতে মাটি কাটতে যায়। আমি বাধা দিলে তারা ক্ষিপ্ত হয়ে আমাকে ও আমার স্ত্রীকে মারধর করে আমার বসতঘরে হামলা চালায়। এছাড়া তারা আমার পরিবারের সদস্যদের প্রাণনাশের হুমকি দেয়। এসময় আমার ডাক-চিৎকারে প্রতিবেশীরা এগিয়ে এসে আমাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে।’

এ ব্যাপারে অভিযুক্ত যুবলীগ নেতা অলি মল্লিক বলেন, আমি শিক্ষককে মারধর করিনি, তার সঙ্গে আমার কথা কাটাকাটি হয়েছে।

মির্জাগঞ্জ থানার ওসি এম আর শওকত আনোয়ার ইসলাম বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ পাঠিয়ে বিরোধীয় জমির কাজ বন্ধ করতে নির্দেশ দিয়েছি। লিখিত অভিযোগ পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।