অ্যান্থনি ব্লিংকেনকে পররাষ্ট্রমন্ত্রী করছেন বাইডেন

যুক্তরাষ্ট্রের নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন তার আস্থাভাজন কূটনৈতিক অ্যান্থনি ব্লিংকেনকে যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব দিতে যাচ্ছেন। একাধিক সূত্র সিএনএনকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছে।

বাইডেনের মন্ত্রিসভার প্রথম দফার ঘোষণায় আগামীকাল মঙ্গলবার (২৪ নভেম্বর) বাইডেন অ্যান্থনি ব্লিংকেনকে দীর্ঘদিনের পররাষ্ট্রনীতি বিষয়ক উপদেষ্টাকে পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিসেবে নির্বাচিত করতে যাচ্ছেন। অন্যদিকে লিন্ডা টমাস-গ্রিনফিল্ডকে জাতিসংঘের রাষ্ট্রদূত হিসেবে বেছে নিচ্ছেন বাইডেন।

ওবামা প্রশাসনে ‘ডেপুটি সেক্রেটারি অব স্টেট’ এবং প্রধান সহকারী জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন ৫৮ বছর বয়সী ব্লিংকেন। তিনি তৎকালীন ভাইস প্রেসিডেন্ট বাইডেনের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টার দায়িত্বও পালন করেছেন।

ওবামা প্রশাসনের বিদেশ নীতির ক্ষেত্রে তিনি কেন্দ্রীয় ভূমিকা পালন করতেন। বিশেষ করে ২০১৪ সালে ক্রিমিয়ায় রাশিয়ার আগ্রাসনের বিষয়ে কীভাবে প্রতিক্রিয়া জানাবে যুক্তরাষ্ট্র, ২০১১ সালে ওসামা বিন লাদেন হত্যার অভিযান এবং আইএসআইএসের বিরুদ্ধে যুদ্ধ পরিচালনার সিদ্ধান্তে তিনি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছিলেন।

ওবামা প্রশাসনের আগে ব্লিংকেন যুক্তরাষ্ট্রের সিনেটের বৈদেশিক নীতি সম্পর্ক কমিটিতে ডেমোক্র্যাটিক স্টাফ ডিরেক্টরের দায়িত্ব পালন করেন। সেই কমিটির সভাপতি ছিলেন জো বাইডেন।

সিএনএনকে কয়েকজন সিনেটর নিশ্চিত করেছেন, ট্রাম্প প্রশাসনের নেওয়া পররাষ্ট্র নীতি সংস্কারের পাশাপাশি ব্লিংকেনকে যুক্তরাষ্ট্রের ঘনিষ্ঠ মিত্রদের সাথে সম্পর্ক পুনরুদ্ধারের দায়িত্ব দেওয়া হবে। সেই সঙ্গে ব্লিংকেন আন্তর্জাতিক সংস্থা ও বিভিন্ন দেশের সঙ্গে সম্পর্ক উন্নয়নে কাজ করবেন।