পুলিশের হেনস্তার শিকার প্রিয়াঙ্কা গান্ধী

উত্তর প্রদেশের হাথরাসে নির্যাতনের শিকার হয়ে প্রাণ হারানো তরুণীর পরিবারের সঙ্গে দেখা করতে যাওয়ার পথে পুলিশি হেনস্তার মুখে পড়েছেন প্রিয়াঙ্কা গান্ধী। একজন পুলিশ সদস্য তার পরনে থাকা কুর্তা ধরে টানছেন; এমন ছবি ধরা পড়েছে সাংবাদিকদের ক্যামেরায়। কংগ্রেসের দাবি অনুযায়ী প্রিয়াঙ্কাকে হেনস্তাকারী ওই পুলিশ সদস্য পুরুষ ছিলেন। এমন ঘটনার দায়ে উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথের পদত্যাগ দাবি করেছে দলটি। বিষয়টি নিয়ে পুলিশের পক্ষ থেকে এখনও কোনও মন্তব্য করা হয়নি।

১৪ সেপ্টেম্বর হাথরাসে চার উচ্চবর্ণের ব্যক্তির সংঘবদ্ধ ধর্ষণসহ বিভৎস শারীরিক নির্যাতনের শিকার হন এই তরুণী। ২৯ সেপ্টেম্বর দিল্লির হাসপাতালে মারা যান ২০ বছরের ওই তরুণী।সীমান্তের কাছে পৌঁছাতেই রাহুল-প্রিয়াঙ্কাদের আটকে দেয়া হয়।

সে সময় পুলিশের সঙ্গে ধস্তাধস্তিতে জড়িয়ে পড়েন কংগ্রেস নেতা-কর্মীরা। তাদের ওপর পুলিশ লাঠিচার্জ করেছে বলেও অভিযোগ দলটির। এরমধ্যেই ক্যামেরায় ধরা পড়া একটি ছবিতে দেখা যাচ্ছে, এক পুলিশ সদস্য কাঁধের কাছে প্রিয়াঙ্কার পোশাক ধরে টানছেন। পুলিশের এই আচারণে তীব্র ক্ষোভ জানিয়েছে ভারতের ঐতিহ্যবাহী রাজনৈতিক দল কংগ্রেস।

দলটির মুখপাত্র রণদীপ সুরজেওয়ালা বলেছেন, এর চেয়ে লজ্জা ও দুঃখজনক আর কিছু হতে পারে না। ‘এরকম গুণ্ডাগিরির জন্য বিজেপি সরকার এবং [যোগী] আদিত্যনাথের ডুবে মরা উচিত। পুরুষ পুলিশ সদস্য দিয়ে প্রিয়াঙ্কা গান্ধীর গায়ে হাত তুলিয়ে আপনি কোন সংস্কারের পরিচয় দিয়েছেন? ভীতুর মতো পুলিশের পেছনে লুকাবেন না। সামনে এসে নিজের কুকর্মের জন্য ইস্তফা দেন’।