কুয়াকাটায় হোটেলে বন্ধুদের নিয়ে প্রেমিকাকে গণধ’র্ষণ

বরগুনার আমতলী পৌরশহরের অষ্টম শ্রেণির এক ছাত্রী পটুয়াখালীর কুয়াকাটায় আবাসিক হোটেলে গণধর্ষণের শিকার হয়েছে। সোমবার (২৪ আগস্ট) রাতে কুয়াকাটার আবাসিক হোটেলে রাজু ও সাগর তাকে ধর্ষণ করা হয়।

মঙ্গলবার (২৫ আগস্ট) দুপুরে ওই ছাত্রীর মা বাদী হয়ে মেয়েকে অপহরণ ও গণধর্ষণের অভিযোগে আমতলী থানায় মামলা দায়ের করেছেন। এ ঘটনার জড়িত থাকার অভিযোগে ছাত্রীর বন্ধু জিসান ওরফে সোহেল (১৮) ও ভাড়াটিয়া মোটরসাইকেল চালক সাগরকে (২১) গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

পুলিশ জানায়, পটুয়াখালীর মহিপুর থানার সদর ইউনিয়নের সেরাজপুর গ্রামের বাদশা গাজীর ছেলে জিসান ওরফে সোহেলের সঙ্গে মোবাইলে বন্ধুত্ব হয় ওই ছাত্রীর। সোমবার বিকেলে জিসান ওই শিক্ষার্থীর সঙ্গে দেখা করতে আমতলী পৌর এলাকায় আসে। ওই ছাত্রী জিসানের সঙ্গে দেখা করার এক পর্যায়ে তাকে কুয়াকাটায় নিয়ে যায়। রাতে রাজু এবং সাগর নীড় হোটেলে জিসান ও সাগরসহ পাঁচজনে মিলে তাকে ধর্ষণ করে। সকালে তাকে আমতলী পাঠিয়ে দেয়। বাড়ি পৌঁছে মায়ের কাছে সব খুলে বলে ওই ছাত্রী।

আমতলী থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. হেলাল উদ্দিন জানান, প্রাথমিক তদন্তে ধর্ষণের প্রমাণ পাওয়া গেছে। তদন্ত সাপেক্ষে বাকি আসামিদের চিহ্নিতকরণ ও গ্রেফতারের জন্য পুলিশ চেষ্টা করছে।