নূর ঢাকার এক আসনে প্রার্থী হবেন, আরেক আসনে প্রার্থী দেবেন

নতুন রাজনৈতিক দল গঠনের প্রক্রিয়ায় ঢাকার দুটি আসনে উপনির্বাচনে অংশ নিতে চাইছেন ডাকসুর সদ্য সাবেক ভিপি নুরুল হক নূর।

এর মধ্যে ঢাকা-১৮ আসনে তিনি নিজে প্রার্থী হবেন, আর ঢাকা-৫ আসনে প্রার্থী করবেন তার সংগঠনের অন্য একজনকে।

রোববার বিকালে নির্বাচন কমিশন কয়েকটি ফাঁকা আসনের উপনির্বাচনের তারিখ ঘোষণা করার পর নূর তার এই সিদ্ধান্ত জানিয়েছেন।

আওয়ামী লীগে দুই সংসদ সদস্য সাহারা খাতুনের মৃত্যুতে ঢাকা-১৮ (উত্তরা) এবং হাবিবুর রহমান মোল্লার মৃত্যুতে ঢাকা-৫ (ডেমরা) আসন শূন্য হয়েছে।

আগামী ৬ অক্টোবর ঢাকা-৫ আসনে উপনির্বাচনে ভোটগ্রহণের সিদ্ধান্ত নিয়েছে ইসি, তারপরে হবে ঢাকা-১৮ আসনে উপনির্বাচন।

নূর বলেন, “আমরা একটি রাজনৈতিক দল গঠনের প্রক্রিয়ার মধ্য দিয়ে এগোচ্ছি।

“সামনে যেহেতু ঢাকার দুটি সংসদীয় উপনির্বাচন, এই নির্বাচনের মাধ্যমে আমরা নিজেদের অবস্থানটাকে আরও ক্লিয়ার করতে চাই। স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে ঢাকা-১৮ আসনের উপনির্বাচনে আমি প্রার্থী হতে চাই। ঢাকা-৫ আসনেও আমরা তরুণ প্রার্থী দেব।”

দল হিসেবে সংসদ নির্বাচনে অংশ নিতে চাইলে নির্বাচন কমিশনে নিবন্ধিত হতে হবে। সেজন্য কিছূ শর্তও পূরণ করতে হয়। তবে স্বতন্ত্র প্রার্থী হতে কোনো বাধা নেই।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগে এক সময়ে যুক্ত থাকা নূর কয়েক বছর আগে সরকারি চাকরিতে কোটা সংস্কারের দাবির আন্দোলনে নেতৃত্ব দিয়ে সারাদেশে পরিচিত হয়ে ওঠেন।

বাংলাদেশ সাধারণ শিক্ষার্থী অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের ওই আন্দোলনে মামলা-হামলার মুখে গত বছর অনুষ্ঠিত ডাকসু নির্বাচনে ভিপি পদে জয়ী হন ইংরেজি বিভাগের এই শিক্ষার্থী।