প্রাইভেটকারে করে নিয়মিত গরু চুরি

বরিশাল-ঢাকা মহাসড়ক থেকে গরু চুরি করে প্রাইভেটকারে তুলে পালানোর সময় এক চোরকে আটক করেছে পুলিশ। এ সময় চোরের সঙ্গে থাকা দুই সহযোগী পালিয়ে যায়। কারের ভেতর থেকে উদ্ধার করা হয় চোরাইকৃত একটি গরু। সোমবার (১০ আগস্ট) সকালে তাকে আটক করা হয়। আটক মিজানুর রহমান হাওলাদার ঝালকাঠির রাজাপুর উপজেলার মৃত আব্দুল মান্নানের ছেলে।

পুলিশ জানায়, গরু চুরি করতেই তিন বছর আগে কারটি কেনে মিজান। সে নিয়মিত গরু চুরি করে আসছিল। এ ঘটনায় সোমবার দুপুরে চোরাইকৃত গরুর মালিক উজিরপুরের জয়শ্রী এলাকার ওমর আলী বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেন।

অভিযানে থাকা উজিরপুর থানার এসআই মো. জাফর জানান, প্রাইভেটকারটি বরিশাল-ঢাকা মহসড়কে দিয়ে যাওয়ার সময় সন্দেহ হলে থামানোর সংকেত দেওয়া হয়। চালক কার না থামিয়ে পালানোর চেষ্টা করে। পরে সাজু পাম্পের সড়কে ট্রাক দিয়ে ব্যারিকেড সৃষ্টি করা হলে সেখানে কারটি থামিয়ে মিজানুরকে আটক করা হয়। এ সময় তার দুই সহযোগী পালিয়ে যায়। প্রাইভেটকার থেকে উদ্ধার করা হয় চুরি করা গরু।

ওসি জিয়াউল আহসান জানান, জিজ্ঞাসাবাদে মিজানুর জানিয়েছে প্রাইভেটকারে করে ১০/১২টি গরু চুরি করেছে সে। মিজানুর দিনের বেলায় প্রাইভেটকার নিয়ে ঘুরে ঘুরে সড়কের পাশে কোন বাড়িতে গরু পালন করে তা দেখে রাখে। রাতে সুযোগ বুঝে ওই গরুর পা বেঁধে প্রাইভেটকারে তুলে সটকে পড়তো। এ ঘটনায় মিজানুর ও তার দুই সহযোগীর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। পালিয়ে যাওয়া দুই সহযোগীকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। মিজানুর রহমান দীর্ঘদিন ধরে গরু চুরি করে আসছে। তার বিরুদ্ধে বিভিন্ন থানায় গরু চুরির একাধিক মামলা আছে। এ কাজে তাকে সহায়তার জন্য দুই জন সহযোগী রয়েছে।