সাতক্ষীরায় ধর্ষণের ভিডিও ইন্টারনেটে, যুবক গ্রেপ্তার

সাতক্ষীরায় ধর্ষণের ভিডিও ইন্টারনেটে, যুবক গ্রেপ্তার

সাতক্ষীরার ভোমরায় এইচএসসি দ্বিতীয় বর্ষের এক শিক্ষার্থীকে বিয়ের প্রলোভনে ধর্ষণ ও ভিডিও ধারণ করে ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগে এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

গ্রেপ্তার মাসুদ হোসেন ভোমরা লক্ষ্মীদাড়ি এলাকার শহীদুল ইসলামের ছেলে।

সাতক্ষীরা সদর থানার ওসি আসাদুজ্জামান জানান, এ ঘটনায় মেয়েটির বাবা গত ২৬ জুলাই নারী নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করলে পুলিশ বাড়ি থেকে মাসুদকে গ্রেপ্তার করে।

মামলার বরাতে ওসি বলেন, মেয়েটি গত বছরের মে মাসে তার চাচার বাড়িতে বেড়াতে যায়। সেখানে ২৭ মে ও ৩ ডিসেম্বর একই এলাকার মাসুদ বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে তাকে ধর্ষণ করে। সে সময় মাসুদ কৌশলে মেয়েটির আপত্তিকর ছবি ও ভিডিও ধারণ করে এবং পরে সেগুলো ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেওয়ার ভয় দেখিয়ে ১ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে।

মামলায় বলা হয়, সে সময় মেয়েটির বাবা মাসুদকে ৩০ হাজার টাকা দিলেও পরে সে আবারও ৫০ হাজার টাকা দাবি করে এবং টাকা না দিলে ছবি ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দেয়। এ বিষয়ে মাসুদের বড় ভাইয়ের কাছে অভিযোগ করেও কোনো সুরাহা হয়নি বরং চাঁদার জন্য মাসুদ চাপ দিতে থাকেন। এক পর্যায়ে মাসুদ টাকা না পেয়ে ওই ছবি ও ভিডিও ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেয়।