ভারতের আরও কত সেনা নিখোঁজ, স্পষ্ট করে বলুন: মোদিকে সোনিয়া গান্ধী

দেড় মাস ধরে লাদাখে চীন উত্তেজনা তৈরি করে রেখেছে। আজ যখন ভারতের ২০ জন সেনা নিহত হয়েছেন তখন ভারতের মানুষ ক্রোধে ফেটে পড়েছেন। এরকম এক অবস্থায় ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির উচিত সাধারণ মানুষকে বলা, আসলে কী হয়েছে লাদাখে। গতকাল বুধবার (১৭ জুন) এক ভিডিয়ো বার্তায় এমনটাই দাবি করলেন কংগ্রেস নেত্রী সোনিয়া গান্ধী।

সোনিয়া বলেন, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির উচিত জনসাধারণকে বলা কীভাবে চীন আমাদের জমি দখল করল? কীভাবে ওই ২০ সেনাকে তারা হত্যা করল? চীন কতটা আমাদের জমি দখল করেছে? সেখানকার বর্তমান পরিস্থিতি কী? কতজন সেনা নিখোঁজ? কতজন জখম? দেশের এই সংকটময় সময় সেনা, নিহত সেনার পরিবার ও সরকারের পাশে রয়েছে কংগ্রেস।

এর আগে, গত সোমবার গালওয়ানে ২০ ভারতীয় সেনার মৃত্যু নিয়ে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেদ্র মোদি বলেন, ভারত শান্তির পক্ষে। তবে যে কোনও আগ্রাসনের যোগ্য জবাব দিতে জানে ভারত। সেনাদের আত্মত্যাগ বিফলে যাবে না। আমাদের কাছে দেশের সার্বভৌমত্ব ও একতা সবচেয়ে বড় বিষয়।

এদিকে, লাদাখের উত্তেজক পরিস্থিতি নিয়ে বহুদিন ধরেই সরব ছিলেন রাহুল গান্ধী। তার দাবি ছিল, কী হচ্ছে, কী পরিস্থিতি লাদাখে তা স্পষ্ট করে বলুক বিজেপি সরকার। গতকাল বুধবার সোনিয়াও একই কথা তুলললেন। ভিডিও বার্তায় তিনি বলেন, দেশের অন্তরাত্মাকে কাঁপিয়ে দিয়েছেন ওই ২০ সেনার মৃত্যু। ওইসব বীর সেনাদের প্রতি ও তাদের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানাচ্ছি।

উল্লেখ্য, গত সোমবার সন্ধ্যায় পূর্ব লাদাখের গালওয়ান উপত্যকায় ভারতীয় সেনার একটি পেট্রোলিং পার্টির ওপরে হামলা চালায় চীনা সেনা। রড, পাথর নিয়ে ভারতীয় সেনাদের ওপরে ঝাঁপিয়ে পড়ে তারা। এরপরের দিন মঙ্গলবার সকালে ভারতীয় সেনাবাহিনীর তরফে বলা হয়, ৩ সেনার মৃত্যু হয়েছে। পরে একটি বিবৃতিতে জানানো হয় আরও ১৭ জন আহত হয়েছেন। পরে ওই ১৭ জনের মৃত্যু হয়।