গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় মারা গেলেন আরও ৩ চিকিৎসক

আজ ঢাকা, চট্টগ্রাম ও দিনাজপুরে করোনা আক্রান্ত হয়ে আরও তিন চিকিৎসক মারা গেছেন। এর মধ্যে রয়েছেন দিনাজপুর বিএমএ এর সাবেক সভাপতি ও এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের প্রথম পরিচালক ডাঃ শাহ আব্দুল আহাদ।

ডাঃ শাহ আব্দুল আহাদ আজ সকাল ৮.২০ মিনিটে ইন্তেকাল করেন। এরআগে তার করোনা শনাক্ত হলে দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন দিনাজপুর সিভিল সার্জন মোঃ আব্দুল কুদ্দুস।

এছাড়া চট্টগ্রামে করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেছেন চিকিৎসক ডা. নুরুল হক। তিনি চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন হাসপাতালে সিনিয়র আবাসিক মেডিকেল কর্মকর্তা ছিলেন। আজ বুধবার সকাল ৬ টা ২৫ মিনিটে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) চিকিৎসাধীন অবস্থায় শেষনিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। তার বাড়ি মহেশ খালি।

স্বজনরা জানান, তিনি জ্বর নিয়ে নয় দিন করোনা ওয়ার্ডে রোগীদের চিকিৎসা দিয়েছেন। পরে অবস্থার অবনতি হলে ১৪ জুন তাকে মেট্রোপলিটন হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। দেয়া হয় প্লাজমা থেরাপিও। কিন্তু সব চেষ্টা ব্যর্থ করে দিয়ে আজ সকালে ইন্তেকাল করেন এই ফ্রন্ট লাইনার চিকিৎসক।

রাজধানীর উত্তরার বাংলাদেশ-কুয়েত মৈত্রী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ডা. মো. আশরাফুজ্জামান
আজ সকাল ৮টার দিকে মারা যান। ডা. মো. আশরাফুজ্জামান গতরাত ১ টার দিকে বাংলাদেশ-কুয়েত মৈত্রী হাসপাতালে ভর্তি হন। চিকিৎসাধীন অবস্থায় আজ সকালে তিনি মারা যান।

ডা. মো. আশরাফুজ্জামান ঢাকা মেডিকেল কলেজের সাবেক সহকারী অধ্যাপক ছিলেন।