আত্মীয়ের বাড়ি বেড়াতে গেলেন করোনা রোগী

মানিকগঞ্জের সাটুরিয়া উপজেলায় করোনাভাইরাস শনাক্ত হওয়ার পর থেকে এক ব্যক্তি নিখোঁজ রয়েছেন। তার বাড়ি সাটুরিয়া উপজেলার খলিলাবাদ গ্রামে।

তিনি ঢাকায় একটি ফলের দোকানে কাজ করতেন। শনিবার ঢাকা থেকে নিজ বাড়িতে আসেন তিনি। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সাটুরিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আশরাফুল আলম।

সাটুরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. মো. মামুন উর রশিদ বলেন, ওই ব্যক্তির নমুনা সংগ্রহ করে গতকাল রোববার পরীক্ষার জন্য সাভারে পাঠানো হয়। সোমবার সকালে তার রিপোর্ট পজিটিভ আসে। এরপর থেকে নিখোঁজ রয়েছেন তিনি।

সাটুরিয়া থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মতিয়ার রহমান মিঞা বলেন, রিপোর্ট হাতে পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আশরাফুল আলম, স্বাস্থ্য কর্মকর্তাসহ ফোর্স নিয়ে করোনা রোগীর বাড়িতে যাই। বাড়িতে গিয়ে দেখি রোগী নেই। তিনি আত্মীয়ের বাড়িতে বেড়াতে গেছেন।

বালিয়াটী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো. রুহুল আমিন বলেন, সোমবার রোগীর বাড়িতে গিয়ে শুনি পাশের গ্রাম মুন্সিচড় গ্রামে আত্মীয়ের বাড়িতে বেড়াতে গেছেন। সেখানেই অবস্থান করছেন তিনি। পরে ওই গ্রামে যাওয়ার পর তিনি পালিয়ে যান। তার সংস্পর্শে আসা ব্যক্তিদের বাড়ি লকডাউন করা হয়েছে।