নেতৃত্ব ছাড়ার পর বিসিবির ‘সর্বোচ্চ পদ’ পাচ্ছেন মাশরাফি

গত বৃহস্পতিবার (৫ মার্চ) সিলেটের সংবাদ সম্মেলনে হুট করেই অধিনায়কত্ব ছাড়ার ঘোষণা দেন মাশরাফি বিন মুর্তজা। তার এই ঘোষণা শুনে অনেকেই অবাক হয়েছিলেন। জানতে চাইলে তিনি বলেন, মনে হয়েছে এটাই উপযুক্ত সময়।

তবে নেতৃত্ব ছাড়ার তিন দিন পার হতে না হতেই দারুণ সুখবর পেলেন মাশরাফি। শনিবার (৭ মার্চ) হাতিরঝিলে বঙ্গবন্ধু স্পোর্টস চ্যাম্পিয়নশিপের উদ্বোধন করেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল এবং যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী মো. জাহিদ আহসান রাসেল, এমপি। এ সময় তারা মাশরাফিকে নিয়ে কথাও বলেছেন।

ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী তার বক্তব্যে বলেন, ‘মাশরাফি দেশের ক্রিকেটারদের আইকন। আমরা তাকে সর্বোচ্চ জায়গায় দেওয়ার জন্যই অপেক্ষা করতেছি। মাশরাফিকে আমরা তার যোগ্য মর্যাদার স্থানেই বসাবো’।

অপরদিকে অর্থমন্ত্রীও (আইসিসি ও বিসিবির সাবেক সভাপতি) অনেকটা একই সুরে কথা বলেছেন, ‘মাশরাফি সবার আইকন। মাশরাফি তার জায়গাতে সব সময় সেরা। সে অধিনায়কত্ব ছেড়েছে, এখন এমপি। তার সাথে আমাদের সবসময় যোগাযোগ ছিল, আছে। তাকে আমরা সর্বোচ্চ মর্যাদাই দেব।’

মাশরাফি এখন আর অধিনায়ক নেই। খেলোয়াড় মাশরাফি কি নিয়মিত জাতীয় দলে সুযোগ পাবেন? সেটা নিয়ে অনেকেরই সন্দেহ। তবে যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী এবং অর্থমন্ত্রীর কথা শুনে মাশরাফিভক্তরা কিছুটা হলেও স্বস্তি পাবেন।

এরিমধ্যে শুরু হয়ে গেছে নানা গুঞ্জনও। তবে কী বড় কোনো পদেই বসানো হবে মাশরাফিকে? হয়তো সময়ই বলে দেবে সেই উত্তর।

প্রসঙ্গত, ৫০ ওভারের ফরম্যাটে অভিষেক হওয়ার পর বাংলাদেশকে মোট ৮৮ ওয়ানডেতে নেতৃত্ব দিয়েছেন মাশরাফি। এই ৮৮ ম্যাচে বাংলাদেশ দল জিতেছে ৫০ ম্যাচ, হেরেছে ৩৬টি। বাকি দুই ম্যাচ পরিত্যক্ত হয়েছে।

ওয়ানডেতে বাংলাদেশকে এতো ম্যাচ জেতাতে পারেননি আর কোনো অধিনায়ক। দুই নম্বরে থাকা হাবিবুল বাশার সুমনের নেতৃত্বে ৬৯ ম্যাচ খেলে বাংলাদেশ জিতেছে ২৯টিতে।

আর জয়ের শতকরা হার, সর্বোচ্চ ম্যাচ খেলার রেকর্ডেও অন্য অধিনায়কদের চেয়ে এগিয়ে মাশরাফি। আন্তর্জাতিক ওয়ানডেতে অধিনায়ক হিসেবে ৮৮ ম্যাচ খেলে ১০২ উইকেট নিয়েছেন মাশরাফি। রান করেছেন ৫৭৮।