কোয়ারেন্টাইন থেকে পালালো যুবতী, খুঁজছে পুলিশ

করোনাভাইরাস আক্রান্ত সন্দেহে এক যুবতী হাসপাতালের কোয়ারেন্টাইন থেকে পালিয়েছে। ওই তরুণীকে খুঁজছে পুলিশ। একাতেরিনা রেপিয়াখ নামের ওই যুবতী ফেব্রুয়ারি মাসে চীন থেকে জ্বর নিয়ে রাশিয়া নিয়ন্ত্রিত ক্রিমিয়ান উপদ্বীপে ফিরে আসেন। পরে তাকে সেভাস্তোপোল শহরের একটি হাসপাতালে পর্যবেক্ষণে রাখা হলে শারীরিক পরীক্ষা শেষ হওয়ার আগেই হাসপাতাল থেকে পালিয়ে যান তিনি।

গত মঙ্গলবার যুক্তরাজ্যের সংবাদমাধ্যম ডেইলি স্টার এক প্রতিবেদনে এ খবর প্রকাশ করেছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, একাতেরিনার দুটি পরীক্ষা করা হলে সেগুলোতে তার শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়নি। তবে তৃতীয় ও চূড়ান্ত পরীক্ষার ফলাফলের জন্য তাকে হাসপাতালে থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল। সেই নির্দেশ অমান্য করে শারীরিক পরীক্ষা সম্পন্ন হওয়ার আগেই হাসপাতাল থেকে পালিয়ে যান তিনি।

ফলস্বরূপ পুলিশ তাকে ধরার জন্য হন্যে হয়ে খুঁজছে। সেভাস্তোপোলের আন্তঃদেশীয় বিভাগের প্রধান নাটালিয়া পেনকোভস্কায়া বলেন, ‘হাসপাতালের নির্দেশ অমান্য করে পালিয়া যাওয়ার কারণে তাকে ওয়ান্টেড লিস্টে রেখেছে আদালত।’