স্যামিকে সর্বোচ্চ বেসামরিক পুরস্কার দিচ্ছে পাকিস্তান

পাকিস্তানের নাগরিকত্বও দেওয়ার পর এবার ওয়েস্ট ইন্ডিজের অলরাউন্ডার ও বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ক ড্যারেন স্যামি পাকিস্তানের সর্বোচ্চ বেসামরিক পুরষ্কার নিশান-ই-পাকিস্তান আজ পেতে যাচ্ছেন। পাকিস্তানে ক্রিকেট ফেরাতে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখার কারনে আজ ইসলামাবাদে তাকে এই সম্মাননা প্রদান করবেন পাকিস্তানের রাষ্ট্রপতি আরিফ আলভি।

এর আগে গত ২০০৯ সালে দুর্ঘটনার পর পাকিস্তানে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ফেরাতে মরিয়া ছিল পাকিস্তান। কিন্তু তাদের ডাকে সাড়া দেননি কেউই। অনেক দেশই বার বার নিরাপত্তক পর্যবেক্ষন করলেও আশা দেখালেও যেতে আগ্রহ দেখায়নি। আর কখনো কোন দেশ ভ্রমণ করলে জাতীয় দলের খুব কম ক্রিকেটারই যেতে আগ্রহ দেখিয়েছেন পাকিস্তানে যেতে।

এ সময় ড্যারেন স্যামির একটি সাক্ষাৎকারে বলেন, ‘আমি আমার পিএসএল ফাইনালের অভিজ্ঞতা সবার সাথে শেয়ার করি, আমাদের সাথে দুর্দান্ত নিরাপত্তা দল ছিল। যারা আমাদের সবকিছু সংক্ষেপে বুঝিয়ে বলে এবং আমরা নির্ভার ছিলাম। সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ব্যাপার আমি বুঝি আমি যখন সেন্ট লুসিয়ায় খেলি সেটা আমার জন্য এবং ভক্তদের জন্য কতটা গুরুত্বপূর্ণ। আমি পাকিস্তানে এই প্রক্রিয়ার অংশ হতে পেরে খুশি।’

আর এসব কারনেই তাকে নাগরিকত্ব দেয়ার প্রস্তাব দেন, স্যামির পাকিস্তান সুপার লিগ দল পেশোয়ার জালামির মালিক জাভেদ আফ্রিদি। জাভেদ আফ্রিদি এ ব্যাপারে বলেছিলেন, স্যামি যখন পাকিস্তানের ক্রিকেটে অবদান রাখেন তখন তার কোনো স্বার্থ ছিল না। আমরা সেটার একটা কৃতজ্ঞতা হিসেবে এই সম্মাননা দিতে চাইছি স্যামিকে।