মৌমাছির বিরুদ্ধে পুরো মার্কেট দখলের অভিযোগ!

মাদারীপুরের কালকিনিতে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের একটি মার্কেট তিন মাস ধরে দখল করে রেখেছে মৌমাছির দল। সেখানে প্রায় শতাধিক মৌচাক তৈরি করেছে মৌ-মাছির দল। এতে করে আতঙ্কে ওই ব্যবসায়ী তার ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ করে দিয়েছেন। এদিকে মৌমাছির চাকগুলো একনজর দেখার জন্য প্রতিনিয়ত উৎসুক জনতা ভিড় জমাচ্ছেন।

উপজেলার শিকারমঙ্গল এলাকার মিয়ারহাট বাজারে ব্যবসায়া প্রতিষ্ঠানের জন্য একটি মার্কেট নির্মান করেন একই এলাকার সিরাজুল ইসলাম। পরে সে মার্কেটের দোকান গুলো ব্যবসায়ী আজিজ বেপারী, কালাম খান, রব চৌধুরী ও খালেক বেপারীসহ প্রায় ১০জনের কাছে ভাড়া দেন। এ দোকান গুলোর চার পাশ দিয়ে হঠাৎ প্রায় শতাধিত মৌমাছির চাক বসেছে। মৌ-মাছির হুলের আতঙ্কে ব্যবসায় দের মাঝে অনেকে দোকান তালাবদ্ধ করে রেখেছেন। ব্যবসায়ী আজিজ বেপারী বলেন, আমার দোকানে মৌ-মাছির চাক বসায় দোকান বন্ধ রেখেছি কারণ মৌমাছির আক্রমণের ভয়ে দোকান কবে খুলতে পারব জানি না। এদিকে মৌ-মাছির চাকগুলো একনজর দেখার জন্য প্রতিনিয়ত উৎসুক জনতা ভিড় জমাচ্ছেন।

স্থানীয় ব্যবসায়ী কাজী জাহাঙ্গীর হোসেন বলেন, প্রতি বছরই এই মার্কেটে মৌমাছির চাক বসে। আর এতে করে ওই মার্কেটের দোকানীদের চড়ম ক্ষতি হয়। এ ব্যাপারে মধু সংগ্রহকারী আকরাম বলেন, শীতের কারণে ওই দোকানে মৌমাছি বাসা বেঁধেছে।