হজ নিয়ে কটূক্তি, কারাগারে পীর

মুসলমানদের পবিত্র স্থান কাবা, মদিনা শরিফ, হজ ও ওমরাহ সম্পর্কে আপত্তিকর মন্তব্য করায় কিশোরগঞ্জের ভৈরব উপজেলার উমানাথপুরের গুলে মদিনা দরবারের কথিত পীর আবুল বাশার আল কাদরীর জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

জানা যায়, জেলার চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক মো. হাবিবুল্লাহ আজ ১৬ ফেব্রুয়ারি রবিবার তার জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

এদিকে আবুল বাশার জামিনের জন্য আদালতে হাজির হয়েছিলেন। তবে তাকে গ্রেপ্তারসহ দৃষ্টান্তমূলক বিচারের দাবিতে ভৈরবে বিভিন্ন ইসলামি সংগঠন আন্দোলন করে আসছিল।

এদিকে ধর্মীয় মূল্যবোধে আঘাত ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এসব প্রচারের অভিযোগ এনে কিশোরগঞ্জ জজ আদালতের আইনজীবী মোহাম্মদ আমিনুল ইসলাম মামুন বাদী হয়ে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে আবুল বাশার আল কাদরীকে একমাত্র আসামি করে গত ১২ জানুয়ারি ভৈরব থানায় একটি মামলা করেন।

এরপর হাইকোর্টের একটি বেঞ্চ গত ১৮ জানুয়ারি চার সপ্তাহের জামিন মঞ্জুর করে তাকে নিম্ন আদালতে আত্মসমর্পণের আদেশ দেন।

জানা যায়, উমানাথপুরের গুলে মদিনা দরবারের কথিত পীর আবুল বাশার আল কাদরী বিভিন্ন ধর্মীয় মাহফিলে পবিত্র কাবা, মদিনা শরিফ, হজ ও ওমরাহকে তুচ্ছ তাচ্ছিল্য করে বক্তব্য দেন।

সেইসঙ্গে নিজের দরবার শরিফকে হেরেম ঘোষণা দেওয়ার কথা বলেন। কথিত পীরের এসব বক্তব্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হলে মুসলমানদের মনে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়।