১০ হাজার করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের লাশ পুড়িয়ে ফেলেছে চীন

করোনা ভাইরাসে এখন পর্যন্ত সরকারীভাবে ১১১৭ জনের মৃ’ত্যুর কথা স্বীকার করেছে চীনা প্রশাসন৷ এছাড়া এই ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ৪২ হাজার বলে জানানো হয়েছে৷ ইতিমধ্যেই বিশ্বের ২৫ টি দেশে করোনা আক্রান্ত পাওয়া গেছে।

তবে সম্প্রতি উহান প্রদেশের স্যাটেলাইট ইমেজে গোটা বিশ্ব স্তম্ভিত৷ যেখানে দেখা যাচ্ছে বাতাসে সালফার ডাই অক্সাইডের মাত্রা এতটাই তীব্র যে সেই এলাকাগুলিকে একেবারে আলাদা করে চিহ্ণিত করা যাচ্ছে৷

এদিকে ব্রিটেনের জনপ্রিয় সংবাদমাধ্যম ডেইলি মেইল এই স্যাটেলাইট ইমেজে দিয়ে খবর প্রকাশ্যে এনেছে যে, করোনা আক্রান্ত ১০ হাজার ব্যক্তির মৃ’তদেহ জ্বালিয়ে দিয়েছে চীন।

তাছাড়া নির্ধারিত অঞ্চলে বাতাসে সালফার ডাই অক্সাইডের মাত্রা প্রতি ঘন মিটারে ১৩৫০ ইউনিট। এমন নিয়ম অনুযায়ী প্রতি ঘনমিটারে ৮০ র বেশি সালফার ডাই অক্সাইড থাকলেই তা যথেষ্ট ক্ষতিকর বলে মানা হয়৷ সাধারণ নিউক্লিয়ার প্ল্যান্টস, গণ পশু মৃ’ত্যু, প্রচুর কেমিক্যাল বর্জ্য থেকে বাতাসে সালফার ডাই অক্সাইডের মাত্রা বাড়তে পারে৷ তবে এ ধরণের মাত্রা হওয়ায় ধারণা হয়েছে যে, উহান, যেটা চীনে সবচেয়ে খারাপভাবে করোনা আক্রান্ত সেখান গণ অগ্নি সৎকার কার্য চলছে৷

এই গণ সৎকারের তত্ত্ব আরও জোরালো হচ্ছে কারণ উহান ছাড়া আরও একটি জায়গার বাতাসের সালফার ডাই অক্সাইডের মাত্রা অত্যন্ত বেশি সেটা হলো চোংকিয়াং। উহানের পর দক্ষিণ চীনের এই প্রদেশ সবচেয়ে খারাপভাবে করোনা আক্রান্ত৷ এখানে প্রতি ঘনমিটারে বাতাসে সালফার ডাই অক্সাইডের পরিমাণ ছিল ৮০০৷ এরপরেই চীন নিজেদের দেশে হওয়া মহামারির খবর লুকোতে লাশ জ্বালিয়ে দিয়েছে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। সূত্র : নিউজ এইটিন।