প্রসূতির মৃত্যুর পর চিকিৎসককে ফুলের মালা পরালেন স্বজনরা!

জিয়াগঞ্জের শতাব্দী দত্ত হালদার নামের এক গৃহবধূ শনিবার ভোরে প্রসব য’ন্ত্রণা নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন। প্রসব যন্ত্রণায় রোগী ছটফট করলেও চিকিৎসক আসেননি। একাধিকবার ফোন করা হলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি। একপর্যায়ে প্রসূতি মা’রা যেতেই রোগীর আত্মীয়রা হাসপাতালে এসে বি’ক্ষোভ দেখান।

শুধু তাই নয়, তারা হাসপাতালের সামনে লা’শ রেখে অভিযুক্ত চিকিৎসককে গলায় মালা পরিয়ে হাত জোর করে টাকা গুজে দেয়া হয়। শনিবার ভারতের পশ্চিমবঙ্গে লালবাগ মহকুমা হাসপাতালে এ ঘটনা ঘটে।

মৃতের কাকা বাপ্পা দত্ত বলেন, ‘চার বার লোক পাঠানো হলেও ডাক্তার আসেননি। যখন এলেন তখন সব শেষ’।

অভিযুক্ত চিকিৎসক বলেন, আমার শরীর খারাপ ছিল। সে জন্য সিস্টারদের টেলিফোনে নির্দেশ দিয়েছি’। তবে, তিনি স্বীকার করে নেন তাকে চারবার কল দেয়া হলেও আসতে পারেননি।

এ ঘটনায় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ ত’দন্তের নির্দেশ দিয়েছেন।