আযহারীকে কটাক্ষ করে সংসদে এমপি মমতাজের গান

ওয়াজের নামে ফেসবুক, ইউটিউব খুললে মিথ্যা আর অ’কথ্য গা’লাগালি ভরা, এগুলো সরকারের ন’জরদারির আওতায় আনা দরকার বলে মন্তব্য করেছেন মানিকগঞ্জ-২ আসনের সংসদ সদস্য কণ্ঠশিল্পী মমতাজ বেগম।

এসময় ঘরে ঘরে দ’ণ্ডপ্রাপ্ত যু’দ্ধাপরাধী সাঈদীর জন্মের আ’হ্বান জানানোর বিষয়ে প্রশাসনের ন’জরদারি বাড়ানোর দাবি জানিয়েছেন মমতাজ।

মমতাজ বেগম বলেন, ধ’র্ম নির’পেক্ষ, অ’সাম্প্র’দায়িক এই সরকারের পাশে শিল্পীরা অতীতেও ছিল, বর্তমানেও আছে, ভবিষ্যতেও থাকবে। কারণ আমরা দেখেছি, আমরা আগের আমলগুলো ভুলে যাইনি। ২০০১ সালে বিএনপি জা’মায়াত ক্ষমতায় আসার পর সব শিল্পীদের গান-বাজনা মোটামুটি ব’ন্ধই হয়ে গিয়েছিল। তারা ধর্ম নি’রপে’ক্ষতার কথা বলে, মানুষের কথা বলে, মানুষের পাশে মানুষকে দাঁড়ানোর কথা বলে। আর তাদের ঠেকানোর জন্য এক দল, একদল… আমি নাম বলবো না। তারা কিন্তু উঠে পড়ে লেগেছে।

তিনি আরও বলেন, এক জায়গায় বলে আল্লামা কোনো মানুষকে বলা যাবে না, আল্লামা একমাত্র আল্লাহকে বলা হবে। আবার আরেক জায়গায় বলে ঘরে ঘরে আল্লামা সাঈদী চলে এসো, সাঈদীর জন্ম হোক। ওখানে আল্লামা বলতে আর কোনো ঝামেলা নাই তাদের। আরও অনেক ধরনের কথা আছে, যেগুলো আমি আর এখন বলবো না। কিন্তু আমাদের প্র’শাসন, আমাদের সরকারকে ন’জরদারি বাড়াতে হবে। কোনো গ্রুপ অনেক বড় তার পক্ষে থাকবো, আর যারা দু’র্বল তার পক্ষে থাকবো না। এ কথা অন্তত আওয়ামী সরকার বিশ্বাসী না। তাই আমাদের সেই বিষয়গুলো মাথায় রাখতে।

এসময় মমতাজ বেগম জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে নিয়ে গান গেয়ে বক্তব্য শেষ করেন।