‘চরিত্রহীন’ অপবাদে গৃহবধূকে প্র’হারের পর চুল ক’র্তন

যশোরের চৌগাছায় ‘চরিত্রহীন’ অ’পবাদ দিয়ে এক গৃহবধূর মাথার চুল কেটে দেয়ার অভিযোগে পাঁচ নারী ও আওয়ামী লীগ নেতাসহ সাতজনকে গ্রে’ফতার করেছে পুলিশ। এর আগে, রোববার সন্ধ্যায় এ ঘটনায় জড়িত ৯ জনের বিরুদ্ধে নি’র্যাতিত গৃহবধূর স্বামী থা’নায় লিখিত অভি’যোগ করেন।

গ্রে’ফতার ব্যক্তিরা হলেন উপজেলার ফুলসারা ইউনিয়নের সলুয়া পূর্বপাড়া গ্রামের আহাম্মদ আলীর ছেলে ও ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সালাম (৪৫), ইমরান হোসেন (২৩), মোহাম্মদ আলীর স্ত্রী আজুফা বেগম (৪০), হাসানের স্ত্রী শিউলী বেগম (২৬), সালামের স্ত্রী রেহেনা (৪০), সিরাজুলের স্ত্রী বিউটি বেগম (৪২) ও জামাল হোসেনের স্ত্রী শাপলা বেগম (৩৫)।
অপর দুই আ’সামি সিরাজুলের ছেলে মিরাজ (২৭) ও মোহাম্মদ আলীর আরেক ছেলে জামাল হোসেন প’লাতক রয়েছেন।

ভু’ক্তভো’গীর স্বামীর বরাতে চৌগাছা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি-তদন্ত) এসএম এনামুল হক জানান, গত রবিবার সকালে স্বামী বাজারে কাজে গেলে খবর পান যে প্রতিবেশী কয়েকজন তার স্ত্রীকে মা’রধর করছে। দ্রুত বাড়ি গিয়ে দেখেন তার স্ত্রী আ’হত অবস্থায় পড়ে আছে। তার মাথার চুল কাটা।

ভু’ক্তভো’গী নারী জানান, তিনি নকশিকাঁথা, বিছানার চাদরসহ বিভিন্ন প্রকার হাতের কাজ করে বেশ আয়-রোজগার করেন।

‘কিন্তু প্রতিবেশীদের ধারণা, আমার চরিত্র ভালো না। তাই তারা আমাকে বেদম মা’রধর করে মা’থার চুল কেটে দিয়েছে,’ বলেন ভু’ক্তভোগী গৃহবধূ।