অবশেষে পুলিশের হাতে ধরা খেলেন জামাই-শাশুড়ি

কুমিল্লা থেকে অবৈধ পণ্য নিয়ে নারায়ণগঞ্জ আসেন জামাই ও শাশুড়ি। তবে জেলার বন্দর উপজেলায় প্রবেশের আগেই তাদের আ’টক করে পুলিশ। এরপর তাদের কাছে থাকা অ’বৈধ পণ্য উদ্ধার করা হয়।

শুক্রবার দুপুরে জেলার সাইলোগেটের শীতলক্ষ্যা নদী পার হওয়ার আগে তাদের আ’টক করা হয়। আ’টকরা হলেন-কুমিল্লা সদরের শাসনগাছা পালপাড়া ‘স’ মিলস এলাকার ইউনুস মিয়ার ছেলে মহাসীন, তার শাশুড়ি বাহার মিয়ার স্ত্রী ফাতেমা বেগম আলোনী।

সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ওসি মো. কামরুল ফারুক জানান, কুমিল্লা থেকে পাঁচ কেজি গাঁজাসহ নারায়ণগঞ্জে আসার জন্য চিটাগাং রোডে নামেন জামাই-শাশুড়ি। পরে জেলার বন্দর উপজেলায় যেতে তারা শীতলক্ষ্যা নদী পাড়ি দেয়ার চেষ্টা করেন। তবে এর আগে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তাদের আ’টক করা হয়। এ সময় তাদের হেফাজতে থাকা পাঁচ কেজি গাঁজা উ’দ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় তাদের বিরুদ্ধে মা’মলা করে আ’দালতে সো’পর্দ করা হয়েছে।