দেশটা সবার, কারও জমিদারিত্ব মানব না: ইশরাক

ক্ষমতাসীনরা দেশটাকে দখল করে নিয়েছে। এখানে মানুষের ভোটাধিকার নেই। এ দেশে কারও জমিদারিত্ব আমরা মানব না। কথাগুলো বলেছেন ঢাকা দক্ষিণের বিএনপির মেয়রপ্রার্থী ইশরাক হোসেন।

ইশরাক বলেন, ‘ঢাকা শহর হবে শান্তির জনপদ। এখানে কোনও সন্ত্রাসীর স্থান হবে না। ঢাকা শহরে কোনও সন্ত্রাসীকে স্পেস দেব না।

‘ভোট নিয়ে কোনো ষড়যন্ত্র আমরা মানব না, কোনো বাধা মানব না। ঢাকা শহরে কোনো সন্ত্রাসীকে আমরা স্পেস দেব না। এই দেশটা আপনাদের, এই দেশটা আমাদের সবার। আমরা কারও জমিদারিত্ব মানব না’-যোগ করেন বিএনপির মেয়র প্রার্থী।

ইশরাক বলেন, ১৯৭১ সালে মহান মু’ক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল। আমি আমার বাবার সঙ্গে সবসময় বিষয়গুলো নিয়ে আলাপ করতাম। উনি আমাকে বলেছেন, বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল একটা গণতান্ত্রিক অধিকার আদায়ের জন্য। যেখানে মূল উদ্দেশ্য হবে জনগণ রাষ্ট্রের মালিক। জনগণ হবে ক্ষমতার মালিক। কিন্তু আমরা আজকে লক্ষ্য করতে পারি, শুধুমাত্র একটি রাজনৈতিক দলের পরিচয়ে যারা আছেন তারাই দখলদারিত্ব করে যাচ্ছেন। এই বাংলাদেশ আর কারও অধিকার নেই, বাকস্বাধীনতার অধিকার নেই, কথা বলার অধিকার নেই।

গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনতে ১ ফেব্রুয়ারি ধানের শীষে ভোট দেয়ার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, ১ ফেব্রুয়ারি একটা সুবর্ণ সুযোগ এসেছে আমাদের অধিকার রক্ষা করার। মহান মু’ক্তিযুদ্ধের মূলমন্ত্র ছিল জনগণ হবে দেশের মালিক, রাষ্ট্রের মালিক। মহান মু’ক্তিযুদ্ধের সেই অধিকারকে পুনঃপ্রতিষ্ঠা করার আবার সুযোগ এসেছে।

এ সময় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক ড. এমাজউদ্দীন আহমদ ইশরাকের মাথায় হাত রেখে দোয়া করেন।