সাবধানঃ বাঁধাকপির মাধ্যমে কৃমি ঢুকছে ব্রেনে, বিকল হচ্ছে মস্তিষ্ক

শীতের সবজির মধ্যে বাঁধাকপি অন্যতম। বাঁধাকপিতে শরীরের জন্য প্রয়োজনীয় প্রায় সব ধরনের ভিটামিন রয়েছে। এতে রয়েছে রিবোফ্লোভিন,প্যান্টোথেনিক অ্যাসিড, থায়ামিন, ভিটামিন বি-৬, ভিটামিন সি ও কে। এ ছাড়া বাঁধাকপিতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ক্যালসিয়াম, ফসফরাস ও সোডিয়াম। বাঁধাকপি হাড় ভালো রাখতে সহায়তা করে।

কিন্তু এবার সেই বাঁধাকপিতেই আতঙ্ক। চিকিৎসকেরা বলছেন, হতে পারে মৃত্যুও। কাজেই সাবধান হন। কিন্তু কী এমন আছে বাঁধাকপিতে যা নিয়ে আতঙ্ক?

বাঁধাকপিতে আতঙ্কের মূল কারণ, লিফ ক্যাবেজ নামে একটি পোকা। লিফ ক্যাবেজ আদতে কৃমি বা টেপওয়ার্ম যা বাসা বাঁধে বাঁধাকপিতে। প্রথমে অন্ত্রে প্রবেশ করে সেখান থেকে রক্তের মাধ্যমে পৌঁছে যায় শরীরের নানা অংশে। ঢুকে পড়ে মস্তিষ্কেও।

লিফ ক্যাবেজ খালি চোখে দেখা যায় না। তবে রান্নার আগে বাঁধাকপি ভালো করে সেদ্ধ করলে কৃমি মরে যায় অনেক সময়

লিফ ক্যাবেজ ঘটিত সংক্রমণকে বলে টিনিয়াসিস। তিন ধরণের কৃমি হয়- টিনিয়া সাগিনাটা, টিনিয়া সোলিয়াম ও টিনিয়া এশিয়াটিকা। দেখা গেছে, চোখে পর্যন্ত পৌঁছে যায় এই কৃমিরা।

আতঙ্কের বিষয়, প্রাথমিক পর্যায়ে বোঝাই যায় না কৃমি আপনার মস্তিষ্কে প্রবেশ করেছে। দেখা দেয় সাধারণ কয়েকটা উপসর্গ যেমন মাথাব্যথা, ক্লান্তি, ভিটামিনের অভাব।

ধীরে ধীরে কৃমিরা ব্রেনে চাপ প্রয়োগ করতে থাকে এবং একটা সময়ে মস্তিষ্ক অচল হয়ে পড়ে। কৃমিরা আকারে ৩.৫ মিটার থেকে ২৫ মিটার পর্যন্ত লম্বা হতে পারে। বেঁচে থাকে প্রায় ৩০ বছর পর্যন্ত।