কমেছে পেঁয়াজের দাম !

দীর্ঘদিন ধরে চড়া দামে বিক্রি হওয়া দেশি পেঁয়াজের দাম সপ্তাহের ব্যবধানে কেজিতে অন্তত ২০ টাকা করে কমেছে। ভালো মানের নতুন দেশি পেঁয়াজ প্রতিকেজি ১০০ টাকা থেকে ১২০ টাকার মধ্যে বিক্রি হচ্ছে, যা গত সপ্তাহেও ১২০ টাকা থেকে ১৪০ টাকার মধ্যে বিক্রি হচ্ছিল।

দেশি পেঁয়াজের সঙ্গে আমদানি করা চীন, মিশর ও পাকিস্তানের পেঁয়াজের দামও কমেছে বলে কারওয়ান বাজারের বিক্রেতারা জানিয়েছেন। তারা বলেন, “দেশি পেঁয়াজের দাম এক সপ্তাহে ১৩০- ১৪০ টাকা থেকে কমে ১০০ টাকায় নেমেছে। আর চায়না পেঁয়াজ প্রতিকেজি ৬৫ টাকা, মিশরেরটা ৭৫ টাকা এবং পাকিস্তানি মুড়িকাটা পেঁয়াজ ৯০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে।”

গেল সপ্তাহে আমদানি করা সব পেঁয়াজই কেজিপ্রতি ৮০ টাকা বা তার বেশি দামে বিক্রি হচ্ছিল। পেঁয়াজ ছাড়াও নিত্যপ্রয়োজনীয় ভোগ্যপণ্যের মধ্যে চিনি, ভোজ্য তেল, সরু চাল, মুগ ডাল, মসুর ডাল, মরিচ ও এলাচের দামও ঊর্ধ্বমুখী।

এগুলোর মধ্যে শুকনো মরিচ, মুগ ডাল, মশুর ডাল, এলাচ ও সরু চালের দাম বেড়েছে গত এক সপ্তাহের মধ্যে। এছাড়া চিনি, সয়াবিন তেল, পাম তেলের দাম গত এক মাস ধরেই ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতায়, অর্থাৎ ধাপে ধাপে বাড়ছে। ঢাকার কয়েকটি বাজার ঘুরে দেখা যায়, এলাচের কেজি এখন বিক্রি হচ্ছে চার হাজার টাকা থেকে ৪২০০ টাকায়, যা এক সপ্তাহ আগেও ছিল দুই হাজার থেকে ২২০০ টাকা। একই সঙ্গে জৈয়ত্রীর দামও প্রতি কেজি ১৮০০ টাকা থেকে বেড়ে ৩২০০ টাকা হয়েছে।