গান চুরি করেছেন নোবেল

সংগীত জীবনের শুরু থেকেই বেশ আলোচনার-সমালোচনার মেধ্যেই আছেন মাঈনুল আহসান নোবেল। ‘সা রে গা মা পা ২০১৯’-এ ‘জাতীয় সংগীত’কে অপমান করেছেন বলে অভিযোগ উঠেছে তার বিরুদ্ধে।

এবার গান চুরির অভিযোগ নিয়ে আবারও নতুন করে আলোচনায় আসলেন ‘সারেগামাপা’ দিয়ে জনপ্রিয়তা পাওয়া সঙ্গীতশিল্পী নোবেল।

গত বুধবার (১৮ ডিসেম্বর) রাতে নিজের ভেরিফাইড ফেসবুক পেজ ও ইউটিউবে ‘দেশ’ শিরোনামের একটি গান প্রকাশ করেন নোবেল। যেখানে গানটির কথা ও সুর নিজের বলে দাবি করেন তিনি।

এরপরই নোবেলের এই গানটির বিরুদ্ধে চুরির অভিযোগ তোলেন গিটারিস্ট ও গানটির লেখক নাসির উল্লাহর ব্যান্ডদল ‘অ্যাবাউট ডার্ক’। ব্যান্ডদলটির এক অভিযোগের প্রেক্ষিতে পরদিনই ফেসবুক পেজ ও ইউটিউব থেকে গানটি সরিয়ে ফেলেন নোবেল।

গান চুরির অভিযোগ প্রসঙ্গে ‘অ্যাবাউট ডার্ক’ বলেন, ‘২০১৬ সালে ‘অ্যাবাউট ডার্ক’ প্রতিষ্ঠিত হয়। গান প্রকাশের শেষ সময়ে নোবেল আমাদের ব্যান্ডে যোগ দেয়। তবে ব্যান্ডের বিভিন্ন যন্ত্রপাতি আত্মসাৎ এর অভিযোগে তাকে ব্যান্ড থেকে কিছুদিন পরই বের করে দেওয়া হয়। সম্প্রতি নোবেল যে গানটি নিজের বলে প্রকাশ করেছিলো গানটি ২০০৫ সালে নাসির উল্লাহ ভাইয়ের লেখা। ২০১৬ সালে গানটিতে দুইটি লাইন সংযোজন করে নোবেল। তবে তাকে দল থেকে বের করে দেওয়ার পর আমরা নোবেলের ওই দুই লাইন বাদ দিয়ে গানটি নতুন করে ‘তুমি’ শিরোনামে চলতি বছরের ফেব্রুয়ারিতে প্রকাশ করেছি। এক বছর আগেও নোবেল এই গানটি নিজের দাবি করে প্রকাশ করেছিল। তবে আলোচনার মুখে সে সময়ও গানটি সরিয়ে নিতে বাধ্য হয় সে। আর এবার যে গানটি নোবেল প্রকাশ করেছে সেটা আমাদের গান প্রকাশের আগে প্রাকটিস করা গানের রেকর্ড ভার্সনটা।’