মোদি টুপি আর ধুতি দিয়ে মানুষকে আলাদা করতে চাইছেঃ মমতা

ভারতে নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের বিরুদ্ধে উত্তাল-বিক্ষোভ ছড়িয়ে পড়ছে চারিদিকে। সম্প্রতি শিক্ষার্থীদের উপর পুলিশি হামলার পর এই বিক্ষোভ আরও বেগবান হয়। বিক্ষোভরত শিক্ষার্থীদের পাশে দাড়ায় সোনিয়া গান্ধী, মমতা ব্যানার্জি ছাড়াও অভিনেত্রী সংসদ সদস্য নুসরত জাহান এবং মিমি চক্রবর্তী সহ আরও অনেকেই।

এদিকে ঝাড়খণ্ডের ভোট প্রচার থেকে মোদি মুসলমানদের ইঙ্গিত করে বলেছিলেন, ‘পোশাক দেখলেই বোঝা যাচ্ছে কারা আন্দোলন করছে!’

তবে মঙ্গলবার যাদবপুর থেকে শুরু হওয়া নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন বিরোধী মিছিলে তৃণমূল নেত্রী মমতা ব্যানার্জি সেই পোশাক প্রসঙ্গ টেনেই নাম না করে মোদিকে তীব্র আক্রমণ শানালেন।

মমতা বলেন, ‘পোশাক দেখলেই কে ভালো আর কে খারাপ বোঝা যায় না কি? যারা টুপি পরেন তারা সবাই খারাপ আর যারা ধুতি পরেন না তারা সবাই ভালো?”

এরপর মমতা আরও বলেন, ‘ওরা ধর্ম, পোশাক দিয়ে মানুষকে আলাদা করতে চাইছে। আমাদের এক হয়ে থাকতে হবে। বাংলায় আমরা মানুষের মধ্যে ভেদাভেদ করতে দেব না, দেব না, দেব না। দেশ জ্বলছে, বাজার জ্বলছে, আর ওরা পোশাক নিয়ে কথা বলছে।’