‘এরদোগান-ইমরান শুধু ফাকা বুলি ছাড়তে উস্তাদ’

বর্তমানে পৃথীবিতে ১৮০ কোটি মুসলিম, ৫৭ টা মুসলিম প্রধান দেশ। অথচ রোহিংগাদের উপর হওয়া গনহত্যার প্রতিবাদ করলো আফ্রিকার সবচেয়ে ছোটো দেশ গাম্বিয়া, যা বাংলাদেশের চেয়ে ১৪ গুন ছোটো, যাদের জনসংখ্যা মাত্র ১৯ লাখ। ইসলামিক সংস্থা অয়াইসি(OIC)। ৯৫% প্রকৃত মুসলিম রাস্ট্রটাই OIC তে মিয়ানমারের বিরুদ্ধে মামলার নেতৃত্ব দিয়েছে।

অথচ বাংলাদেশের পাবলিক ইসলামী বীর ভাবে পাকিস্তানের ইমরান খানকে, আর তুর্কীর এরদোগানকে। কিন্তু রিসেপ তাইপে এরদোগান, ইমরান খান এরা শুধু ফাকা বুলি ছাড়তে উস্তাদ। আসল ইসলামী বীর হলো গাম্বিয়ার আইনমন্ত্রী আবু বকর তামবাদু। যার নেতৃত্বে আজ মায়ানমারের মতো রাস্ট্রটাকে আন্তজার্তিক কাঠগড়ায় দাড় করানো গেছে।
ফেসবুক পেইজ Dr Zakir Naik- PeaceTv- Bangla Lectures এ এভাবেই গাম্বিয়ার আইনমন্ত্রী আবু বকর তামবাদু কে সাধুবাদ জানায়।

তাদের মতে, প্রকৃতভাবে মুসলিমদের স্বার্থে লড়াই করছে আফ্রিকার নাম না জানা এই রাস্ট্রটা। আবু বকর ভাইয়ের জায়গায় পাকিস্তানি ইমরান খান হলে এতক্ষনে বাংলার জনতা তাকে নতুন ইসলামী খলিফা কিংবা ইসলামী মুজাহিদ বলে ঘোষনা দিতো। তোমরা চোখে আংগুল দিয়ে দেখায়া দিলে মুসলিমের পাশে আরেক মুসলিমকে কিভাবে দাড়াতে হয়। শুধু সৎ ইচ্ছা থাকলেই চলে। তাই ধন্যবাদ গাম্বিয়া, ধন্যবাদ আবুবকর তামবাদু।

উল্লেখ্য, গত (১১ ডিসেম্বর) নেদারল্যান্ডের হেগে আন্তর্জাতিক বিচার আদালতে রোহিঙ্গা গণহত্যা মামলার শুনানির দ্বিতীয় দিনে অভিযুক্ত দেশটির এজেন্ট ক্রিস্টোফার স্টকার ও মিস ওকোয়া আদালতকে বলেন, মিয়ানমারের ঘটনায় বিক্ষুদ্ধ হওয়ার কথা বাংলাদেশের। কিন্তু, মামলা করেছে গাম্বিয়া।

তার মতে, ওআইসির পক্ষে মামলার প্রস্তুতি নেওয়ার পর গাম্বিয়া মিয়ানমারে গণহত্যার প্রসঙ্গটি এনেছে। এর আগ পর্যন্ত দেশটি এ বিষয়ে কোনো কিছু বলেনি।

সূত্রঃ ফেসবুক পেইজ Dr Zakir Naik- PeaceTv- Bangla Lectures