স্বপ্ন জয় করতে বিয়ের আসর থেকে পালিয়েছিলেন আর্চার ইতি!

বয়স তখন মাত্র এগারো। নাবালিকা হওয়া সত্ত্বেও মেয়েটির পড়াশোনা বাদ দিয়ে বিয়ের আয়োজন করে তার পরিবার।কিন্তু মেয়েটি ছিল অপ্রতিরোধ্য, ইচ্ছা শক্তি ছিল আদম্য। তাই সিদ্ধান্ত নিল বিয়ের আসর থেকে পালানোর।

সেই মেয়েটি আর কেউ নন , চলতি এসএ গেমসে দেশকে সোনা এনে দেয়া ইতি খাতুন। গতকাল রোববার নেপালের পোখারায় রোববার মেয়েদের রিকার্ভ দলগত ইভেন্টে ভুটানের বিপক্ষে ৬-০ সেট পয়েন্টে জিতে মেয়েরা। এরপর রিকার্ভ মিশ্র ইভেন্টে রোমান সানার সঙ্গে ভুটানকে ৬-২ সেট পয়েন্টে হারিয়ে সোনার পদক জিতেন ইতি।

দেশের হয়ে স্বর্ণ জিতে বেশ উচ্ছ্বসিত ইতি। জানা যায়, চুয়াডাঙ্গার ট্যালেন্ট হান্ট প্রতিযোগিতায় নজরে পড়েন কোচদের। তীরন্দাজ সংসদ তাকে দলে নেয়।

ইতির পেছনে অবদান রয়েছে আর্চারি ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক কাজী রাজীব উদ্দিন আহমেদ চপলের। মূলত তার প্রচেষ্টাতেই ইতির আর্চার হয়ে ওঠা। তবে তিনি এখানে থেমে থাকতে চান না। স্বপ্ন আরও বড় কিছু করার।