পাপনকে কথা দিয়েও রাখেননি কোচ এবং অধিনায়ক

ভারতের বিপক্ষে শুক্রবার শুরু হওয়া দিবারাত্রির ঐতিহাসিক টেস্টে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে ছিলেন খেলা শুরু হওয়ার আগে থেকেই। গতকাল রাতে প্রধানমন্ত্রী দেশে ফিরে গেলেও বিসিবি সভাপতি এখনো আছেন কলকাতায়। দলের বাজে অবস্থায় গতকাল ইডেনে দ্বিতীয় দিন শেষে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে তিনি বলেন, ‘আমরা টেস্ট ক্রিকেটে সবচেয়ে বড় দুর্বল দল।’

‘আমরা শক্তিশালী দলের বিপক্ষে খেলছি, তারা বিশ্বের সবচেয়ে শক্তিশালী দল এখন। ওদের দেশে এসে খেলা আরও কঠিন। টেস্টে আমরা সবচেয়ে দুর্বল। টি-টোয়েন্টিতেও দুর্বল তবে টেস্টে আমরা বেশি দুর্বল দল’, দল নিয়ে এভাবেই বলছিলেন পাপন।

বাংলাদেশ প্রথম টেস্টে টসে জিতে আগে ব্যাটিং নিয়েছিল। কিন্তু ব্যাটিং নিয়ে শুরু থেকেই ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়ে। শেষ পর্যন্ত প্রথম ইনিংসে ১৫০ রানে গুটিয়ে যায়। দ্বিতীয় টেস্টেও টস জিতে ব্যাটিং নিয়েছেন অধিনায়ক মুমিনুল হক। এই টেস্টে প্রথম টেস্টের চেয়েও অবস্থা বেশি খারাপ। ১০৬ রানেই গুটিয়ে যান মুমিনুলরা।

দুর্বল দল হওয়ার পরও প্রথম ইনিংসে আগে ব্যাটিং নেওয়াটা পাপনের কাছে আশ্চর্য হয়ে ঠেকেছে। তিনি বলেন, ‘প্রথম ইনিংসে ব্যাটিং নেওয়ায় সত্যিই আশ্চর্য হয়েছি, আমরা সকলেই হয়েছি। বেশি আশ্চর্য হয়েছি আগের দিন টিমের সাথে আমি বসেছি। কোচ-অধিনায়ক দুজনেই বলেছেন টসে জিতলে ফিল্ডিং নেব।‘

তিনি আরও বলেন, ‘যখন আমরা টসে জিতে ব্যাটিং নিতে দেখেছি, প্রথম ধাক্কাটা খেয়েছি আমি। ভারতীয় যত জনের সাথে কথা হয়েছে তারা বলেছে টসে জিতলে তারা ফিল্ডিংই নিতো।’