শুধু মাটিতে নয়, গাছেও ধরে পেঁয়াজ

পেঁয়াজের বিভিন্ন জাত রয়েছে। ক্ষেত্রবিশেষে বিভিন্ন দেশে বিভিন্ন জাতের পেঁয়াজ আমরা দেখতে পাই। দেশ অনুসারে পেঁয়াজের আকারে ভিন্নতা আমরা লক্ষ্য করি। তবে ভারত বা বাংলাদেশের পেঁয়াজ সাধারণত মাটির নিচে পাওয়া যায়। পেঁয়াজ খাওয়ার উপযুক্ত হলে মরে যায় গাছ। তখন মাটির নিচ থেকে টেনে তুলতে হয় পেঁয়াজ। এটাই প্রচলিত নিয়ম। কিন্তু এর ব্যতিক্রমও রয়েছে। শুধু মাটিতে নয়, পেঁয়াজ ধরে গাছের ডগায়।

জানা যায়, মিশরের পেঁয়াজ ধরে গাছে। এ ধরনের পেঁয়াজকে ‘ট্রি অনিয়ন’, ‘ইজিপশিয়ান ট্রি অনিয়ন’, ‘টপ অনিয়ন’, ‘উইন্টার অনিয়ন’ নামে ডাকা হয়।

সূত্র জানায়, মিশরের এ পেঁয়াজের বৈজ্ঞানিক নাম ‘আলিয়ুম প্রলিফারাম’। এ পেঁয়াজ গাছের গোড়ায় না হয়ে আগায় ধরে। সাধারণত গাছের গোড়ায়ই পেঁয়াজ হয়, যা মাটির নিচে থাকে। বাংলাদেশ ও ভারতসহ দুনিয়াজুড়ে এভাবেই পেঁয়াজ উৎপাদন হয়। তবে মিশরে পাওয়া যায় ভিন্নধর্মী এ পেঁয়াজ।

‘টপ অনিয়ন’র গাছ সাধারণ পেঁয়াজের মতোই হয়। গাছের প্রতিটি পাতার উপরে ফুলও হয় সাধারণ পেঁয়াজের মতো। পরে ফুলটি ধীরে ধীরে পেঁয়াজে পরিণত হয়। গাছের গোড়াটি দেখতে সাধারণ পেঁয়াজের মতো হলেও এটি আকারে ছোট হয়। তাই গোড়ার অংশকে পেঁয়াজ হিসেবে ব্যবহার করা যায় না।