বাংলাদেশ-ভারতের ‘গোলাপী’ টেস্ট ম্যাচের কিছু গুরুত্বপূর্ণ তথ্য

২০১৫ সালে অ্যাডিলেডে প্রথম দিন-রাতের টেস্ট খেলা হয়েছিল অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডের মধ্যে। চার বছর পর এক নম্বর টেস্ট দল ভারত এবং নয় নম্বর টেস্ট খেলুরে দল হিসেবে দিন-রাতের টেস্ট খেলতে নামছে বাংলাদেশ।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি) ২০১২ সালেই দিন-রাতের টেস্টের ব্যাপারে সবুজ সংকেত দিয়েছিল। কিন্তু তারপর প্রথম গোলাপী বল মাঠে নামাতে সময় লেগেছিল তিন বছর।

ক্রিকেটের ইতিহাসে ১২তম গোলাপী বলের ক্রিকেট খেলতে মাঠে নামছে ভারত ও বাংলাদেশ। এই ম্যাচ ঘিরে বেশ কিছু তথ্য জেনে নিন:

– কলকাতার ইডেন গার্ডেনে বাংলাদেশের বিরুদ্ধে প্রথম দিন-রাতের টেস্ট আয়োজন করতে চলেছে ভারত।

– ম্যাচ শুরু হবে দুপুর ১টা থেকে, শেষ হবে রাত ৮টায় (ভারতীয় সময়)।

– ম্যাচে প্রথম বিরতি হবে দুপুর ৩টায়, দ্বিতীয় সেশন শুরু হবে ৩টা ৪০ মিনিটে। দ্বিতীয় বিরতি দেয়া হবে বিকাল ৫টা ৪০ মিনিটে এবং ফাইনাল সেশন শুরু হবে সন্ধ্যা ৬টায়।

– ম্যাচটি খেলা হবে গোলাপী এসজি বলে। ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড এসজিকে ৭২টি বল বানানোর অর্ডার দিয়েছিল এ ম্যাচের জন্য।

– ম্যাচের দিন সেনাবাহিনীর প্যারাট্রুপার উড়ে এসে ঠিক টসের আগে দুই অধিনায়ক বিরাট কোহলি ও মুমিনুল হকের হাতে তুলে দেবে গোলাপী বল।

– ইডেনের বাইরে জায়ান্ট গোলাপী বেলুন লাগানো হয়েছে যা ম্যাচের শেষ পর্যন্ত থাকবে।

– শহীদ মিনারের আলোর রঙও গোলাপি করে দেয়া হয়েছে। পাশাপাশি কলকাতার বেশ কিছু পার্ককেও গোলাপী আলোতে সাজানো হয়েছে।

– ভারত-বাংলাদেশ প্রথম দিন-রাতের টেস্টের দুই অফিশিয়াল ম্যাসকট পিঙ্কু ও টিঙ্কু।

– প্রথম তিন দিনের ৬৫ হাজার করে টিকিট ইতিমধ্যেই বিক্রি হয়ে গিয়েছে।

– শহরজুড়ে বিলবোর্ড, ছয়টি এলইডি বোর্ড, ব্র্যান্ডেড বাস গত সোমবার থেকে ছড়িয়ে দেয়া হয়েছে। ইউএনবি।